শনিবার - এপ্রিল ২০ - ২০২৪

অন্টারিওর বাড়ি ভাড়া প্রক্রিয়া বৈষম্যমূলক

ছবি টেইলা মালোরকা

অন্টারিওর বাড়ি ভাড়ার প্রক্রিয়াকে বৈষম্যমূলক বলে মনে করেন ৯৩ শতাংশ কৃষ্ণাঙ্গ রিয়েল এস্টেট এজেন্ট। অন্টারিও রিয়েল এস্টেট অ্যাসোসিয়েশনের নতুন এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।
অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্সিয়াল অ্যাডভাইজরি গ্রুপ (পিএজি) অন ডাইভারসিটি, ইকুইটি অ্যান্ড ইনক্লুশন প্রথমবারের মতো ফাইটিং ফর ফেয়ার হাউজিং প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। তাতে কীভাবে পদ্ধতিগত বর্ণবাদ নির্মূল করে অন্টারিওর আবাসন বাজারে অন্তর্ভুক্তি উন্নত করা যায় সে সম্পর্কে ১৯ দফা সুপারিশ করা হয়েছে।
প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রদেশের প্রতি ১০ জনের মধ্যে চারজন রিয়েল এস্টেট এজেন্ট ভাড়া চুক্তিকে বৈষম্যমূলক বলে উল্লেখ করেছেন।
দুর্ভাগ্যজনক হলেও এটাই ঘটছে এবং এটা খুবই কঠিন। আপনি যদি ভাড়া না পান তাহলে বাড়ি কিনে ফেলুন। ভাড়া হচ্ছে আবাসনের সিড়ির প্রথম পদক্ষেপ। আপনি যদি প্রথম সিড়িতে পা রাখতে না পারেন তাহলে সেটা বিরাট সমস্যা।
প্রতিবেদন অনুযায়ী, এক-তৃতীয়াংশ রিয়েল এস্টেট এজেন্টকে বৈষ্যমমূলক বা বর্ণবাদের অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। বিআইপিওসি রিয়েলটরদের প্রতি চারজনের মধ্যে একজন বলেছেন, কেবলমাত্র তাদের পরিচয়ের কারণে মক্কেলরা তাদের সঙ্গে কাজ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।
অন্যদিকে প্রতি ১০ জনের মধ্যে দুইজন গ্রাহক অন্যায় ব্যবহারের শিকার হওয়ার কথা জানিয়েছেন। একই ঘটনার শিকার হওয়ার কথা জানিয়েছেন বিওপিওসি এবং এলজিবিটিকিউ২এস+ সদস্যরাও। এছাড়া জরিপে অংশ নেওয়া ১৬ শতাংশ গ্রাহক তাদের বর্ণ, জাতি, লিঙ্গ ও সেক্সুয়াল ওরিয়েন্টেশনের কারণে গৃহঋণ নিতে প্রতিবন্ধকতার শিকার হওয়ার কথা উল্লেখ করেছেন।
এছাড়া সমীক্ষায় অংশ নেওয়া ৮০ শতাংশ গ্রাহক বলেছেন, বৈষম্যমূলক আচরণের বিষয়টি জানাতে কোথায় যেতে হবে তা তারা জানেন না। তারপরও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক রিয়েল এস্টেট এজেন্ট সমস্যার কথা জানাননি বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।
এ অবস্থায় আবাসন বাজারের বর্ণবাদ ও অন্যায্যতার অবসানে পিএজি ১৯ দফা সুপারিশ করেছে। অনগ্রসর কমিউনিটিগুলো যাতে সাশ্রয়ী আবাসন সুবিধা পায় সেজন্য অন্টারিও রেসিডেন্সিয়াল টেনান্সিস অ্যাক্ট (২০০৬) পর্যালোচনা করা, নতুন রেন্টাল প্রকল্পে সরকার আরোপিত ব্যয় কমানো, আগামী দশকে ৯৯ হাজার কমিউনিটি হাউজিং নির্মাণ এর মধ্যে অন্যতম।
প্রায় ১ হাজার ৫০০ গ্রাহক এবং প্রায় ২ হাজার রিয়েলটর সমীক্ষায় অংশ নেন। গ্রাহকদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বিআইপিওসি এবং এলজিবিটিকিউ২এস+ সদস্য ছিলেন।
This article was written by Rezaul Haque as part of the LJI

- Advertisement -

Read More

Recent