শনিবার - এপ্রিল ২০ - ২০২৪

গ্রিন পার্টির নেতৃত্বে আবারও এলিজাবেথ মে

ফেডারেল গ্রিন পার্টি পরিচিত মুখ এলিজাবেথ মেকে আবার নেতৃত্বে ফিরিয়ে এনেছে

ফেডারেল নির্বাচনে হতাশাজনক ফল, অভ্যন্তরীণ কোন্দল এবং তহবিল সংগ্রহের পরিমাণ হ্রাসের মধ্যে ফেডারেল গ্রিন পার্টি পরিচিত মুখ এলিজাবেথ মেকে আবার নেতৃত্বে ফিরিয়ে এনেছে। শনিবার রাতে তিনি দলীয় প্রধান নির্বাচিত হন।

ব্রিটিশ কলাম্বিয়া থেকে দীর্ঘদিনের সংসদ সদস্য এলিজাবেথ মে ২০০৬ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত গ্রিন পার্টির নেতৃত্বে ছিলেন। ষষ্ঠ ও চূড়ান্ত দফার ভোটাভুটিতে তিনি আবারও দলীয় প্রধান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ভোট পেয়েছেন ৪ হাজার ৬৬৬টি। শুরু থেকেই তিনি নেতৃত্বের দৌড়ে এগিয়ে ছিলেন। কিন্তু আনা কিনান ভালোভাবেই দ্বিতীয় স্থান ধরে রেখেছিলেন।

- Advertisement -

জয়লাভের পর এলিজাবেথ মে বলেন, এটা ভিন্ন ধরনের নেতৃত্ব। গ্রিন পার্টি যে ভিন্নভাবে কাজ করে এটা তারই প্রমাণ।

পুরো প্রচারণায় ৬৮ বছর বয়সী মে তার অভিজ্ঞতার কথা প্রচার করে গেছেন। বারবার তিনি এই দাবি করেছেন যে, ২০১৯ সালের ফেডারেল নির্বাচনের পর তিনি যখন নেতৃত্ব ছাড়েন তখন গ্রিণ পার্টিকে তিনি ভালো জায়গায় রেখে গিয়েছিলেন।

ওই নির্বাচনে গ্রিন পার্টির তিনজন প্রার্থী জয়লাভ করেছিলেন এবং দলগতভাবে তারা ভোট পেয়েছিল ৬ দশমিক ৫ শতাংশ। যদিও হাউস অব কমন্সে আনুষ্ঠানিক দল হওয়ার জন্য এখনো তা যথেষ্ট নয়। ২০২১ সালের নির্বাচনে পপুলার ভোটের মাত্র ২ দশমিক ৩ শতাংশ নিজেদের পক্ষে টানতে সক্ষম হয় গ্রিন পার্টি। নির্বাচনে মে তার আসন্িট ধরে রাখতে সক্ষম হন এবং মাইক মোরিস অন্টারিও থেকে জিতে আসেন। আগের দলীয় প্রধান অনামী পল টরন্টো সেন্টারে চতুর্থ হন।

মে তার বিজয়ী ভাষণে বলেন, তিন বছর আগে আমি পদত্যাগ এই বিশ^াস নিয়ে যে, দলটি শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে এবং এমপির সংখ্যা আরও বাড়বে। আমি মনে করি যে, পরিবর্তনের প্রয়োজন আছে। পরিবর্তন চাওয়া কণ্ঠগুলো আমি শুনেছি। তারা তরুণ নেতৃত্ব চান। দলের এগিয়ে যেতে ভিন্ন ধরনের পদ্ধতি তারা চান।

- Advertisement -

Read More

Recent