সোমবার - জুন ১৭ - ২০২৪

ভার্চুয়াল ক্লিনিক স্বাস্থ্যখাতের ওপর চাপ আরও বাড়িয়ে দিতে পারে

ভাচুয়াল-কেয়ার ক্লিনিক চাপে থাকা স্বাস্থ্যখাতের ওপর চাপ আরও বাড়িয়ে দিতে পারে বলে জানিয়েছে অন্টারিও মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (ওএমএ)। যদিও কিছু রোগী ও চিকিৎসক একে গুরুত্বপূর্ণ বিকল্প হিসেবে দেখছেন।
ওএমএর এই মন্তব্য এমন এক সময় এল যখন শিশু হাসপাতাল, জরুরি বিভাগ এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্যসেবা খাত চাহিদা সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে। একজন পারিবারিক চিকিৎসক বলেন, ভার্চুয়াল ক্লিনিক প্রকৃতপক্ষে আমাদের স্বাস্থ্যসেবায় ব্যয় বাড়িয়ে দিতে পারে।

- Advertisement -

যারা পারিবারিক চিকিৎসকের কাছে গেছে এবং যারা শুধুমাত্র ভার্চুয়াল ক্লিনিকের সেবা নিয়েছে তাদের মধ্যে তুলনা করে পরিচালিত একটি গবেষণার নেতৃত্ব দিয়েছেন টারা কিরান। প্রিপিন্ট গবেষণায় দেখা গেছে, ভার্চুয়াল ওয়াক-ইন ক্লিনিকের সেবাগ্রহীতারা নিরবচ্ছিন্ন সেবা না পাওয়ায় ৩০ দিনের মধ্যে দুইবার জরুরি বিভাগে এসে থাকেন।

কর্মীরা বলছেন, ভার্চুয়াল ওয়াক-ইন ক্লিনিক স্বাস্থ্যসেবার প্রাপ্যতা বাড়িয়েছে এবং ছোটোখাটো সমস্যা নিয়ে রোগীদের জরুরি বিভাগ ও শিশু হাসপাতালে আসা বন্ধ করছে।

ভার্চুয়াল ক্লিনিক কিক্সকেয়ারে অন্টারিওজুড়ে শিশু রোগীদের সেবা দিয়ে থাকেন টরন্টোর শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আভিভা লো। তিনি বলেন, সরাসরি একবার আসা রোগীদেরকেও একই মানের সেবা দিতে পারছেন তিনি। কারণ, প্রথমবারের রোগীদের অন্য চিকিৎসকরা তার কাছে পাঠাচ্ছেন।

ফি পরিবর্তনের কারণে কিক্সকেয়ার এখন আর জরুরিভিত্তিতে ভার্চুয়াল সেবা দিচ্ছে না। কারণ, নতুন ফির ফলে তাদের তহবিল মডেল আর লাভজনক মনে হচ্ছে না। ১ ডিসেম্বরের আগে কিক্সকেয়ার শিশু রোগ বিশেষজ্ঞরা প্রতি মাসে প্রায় ২ হাজার রোগী দেখতেন। মহামারির সময় অন্টারিওতে তারা রোগী দেখতেন ২০ হাজারের মতো।

This article was written by Rezaul Haque as part of the LJI

- Advertisement -

Read More

Recent