বুধবার - মে ২২ - ২০২৪

এডমন্টনে দুই পুলিশ কর্মকর্তা খুন

এডমন্টনে দুই টহল পুলিশ কর্মকর্তা খুন হয়েছেন। পারিবারিক বিরোধ নিয়ে ফোন পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে সেখানে গিয়েছিলেন তারা। এই হত্যাকা-ে ১৬ বছর বয়সী এক বালককে সন্দেহ করা হচ্ছে। নিজের গুলিতে সেও নিহত হয়েছে।

- Advertisement -

এডমন্টন পুলিশ সার্ভিসের (ইপিএস) একজন মুখপাত্র বলেন, ওই বালক বৃহস্পতিবার রাতে তার মাকেও গুলি করে এবং তিনি বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তার জীবন শঙ্কাপূর্ণ।

দুই টহল পুলিশ খুনের ঘটনাকে অবিশ^াস্য এবং হৃদয়বিদারক বলে মন্তব্য করেছেন ইপিএস পুলিশ প্রধান ডেল ম্যাকফি। নিহত দুই পুলিশ কর্মকর্তা হলেন ৩৫ বছর বয়সী কনস্টেবল ট্র্যাভিস জর্ডান এবং ৩০ বছর বয়সী কনস্টেবল ব্রেট রায়ান। জর্ডান সাড়ে আট বছর ধরে ইপিএসে চাকরি করেন। রায়ান চাকরি করেন সাড়ে পাঁচ বছর।

ম্যাকফি বলেন, কনস্টেবল জর্ডান ও রায়ান ছিলেন আমাদের ইপিএস পরিবারের মূল্যবান সদস্য এবং দুজনেই প্রতিদিনই আমাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করেছেন। তাদের হারিয়ে আমরা কতটা বিষণœ আপনাদের তা বোঝাতে পারবো না। এ ঘটনায় তাদের পরিবার ও বন্ধু, ইপিএস পরিবার এবং আমাদের সমগ্র কমিউনিটি বেদনার্ত। কিন্তু এখানে আমাদের সবাইকে একে অপরের জন্য থাকতে হবে।

মধ্যরাতের কিছু পরেই ইঙ্গলউড নেবারহুডে ইপিএসকে ডাকা হয় এবং এই দুই কর্মকর্তা হত্যার তদন্ত এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। ১৬ মার্চ সকালে দুই পুলিশ কর্মকর্তা খুনের ঘটনা এডমন্টনের একজন পুলিশ কর্মকর্তা তদন্ত করছেন।

ম্যাকফি বলেন, রাত ১২টা ৪৭ মিনিটের দিকে আমাদের পশ্চিম বিভাগের কনস্টেবল জর্ডান ও রায়ান ১১৪ অ্যাভিনিউ ও ১৩২ নম্বর স্ট্রিটের কাছে একটি অ্যাপার্টমেন্টে পারিবারিক বিরোধের খবর পেয়ে সেখানে যান। পৌঁছানোর পর দুই টহল সদস্য বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করেন। এরপর অ্যাপার্টমেন্টের দিকে যাওয়ার সময় তারা গুলিবিদ্ধ হন। এত অতর্কিতে গুলি চালানো হয় যে, তাদের অস্ত্র বের করার কোনো সুযোগই পাননি নিহতরা। আমাদের সদস্যরা দ্রুত তাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু সেখানে পৌঁছানোর পর তাদের মৃত্যু হয়।

এই হত্যাকা-ের বিষয়ে আরও তথ্য আসলে তা প্রকাশ করবেন বলে জানান ম্যাকফি। কিন্তু এ ব্যাপারে পুলিশের তদন্ত চলমান থাকায় জনগণকে ধৈর্য্য ধরার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। এ নিয়ে জনগণ কোনো ঝুঁকিতে নেই।

তিনি বলেন, এই দুঃখের মধ্যে আজকেও নগরীকে রক্ষায় কাজ করছেন আমাদের সদস্যরা। এটাই পুলিশ কর্মকর্তাদের রোজ করতে হয়। এমনকি তাদের সামনে ঝুঁকি আছে জেনেও তাদেরকে এটা করতে হয়। এমন বেদনার মধ্যেও তাদের এই প্রতিশ্রুতির কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। আমাদের সদস্যরা কতটা বিনয়ী এবং গর্বিত পুলিশ প্রধান হিসেবে আমি আপনাদের সেটাই বলতে চাই।

- Advertisement -

Read More

Recent