বুধবার - ফেব্রুয়ারি ২১ - ২০২৪

সুদানের পরিস্থিতি দ্রুত খারাপ হচ্ছে : জোলি

সুদান থেকে কানাডিয়ানদের ফিরিয়ে আনার মতো কোনো পরিস্থিতি নেই বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলানি জোলি

সুদানের সেনাবাহিনী ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্যারামিলিটারির মধ্যকার লড়াই দ্রুত খারাপ হচ্ছে। এই অবস্থায় সুদান থেকে কানাডিয়ানদের ফিরিয়ে আনার মতো কোনো পরিস্থিতি নেই বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলানি জোলি।

বৃহস্পতিবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, বিমানবন্দরে এখন যাওয়ার পরিস্থিতি নেই। সুতরাং পরিস্থিতি খুৃবই খারাপ। এই মুহূর্তে কানাডিয়ানদের ফিরিয়ে আনার কোনো সুযোগ নেইে। এই অবস্থঅয় আমরা কানাডিয়ানদের নিরাপদ আশ্রয়ে থাকার অনুরোধ জানাচ্ছি।

- Advertisement -

এক সপ্তাহ আগেও রাজধানী খার্তুমের সড়কগুলো তুলনামূলক শান্ত ছিল। কিন্তু গত রোববার থেকে পরিস্থিতি খারাপের দিকে চলে গেছে এবং দুটি গ্রুপের মধ্যে সহিংসতা চলছে।

গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স ডিপার্টমেন্টের হিসেবে সুদানে তালিকাভুক্ত কানাডিয়ান রয়েছেন দেড় হাজারের মতো। সেখানে অবস্থানরত যেসব কানাডিয়ান এখনো তাদের তথ্য সরকারের কাছে দেয়নি তাদেরকে তা দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন জোলি। তিনি বলেন, সুদানে যারা অবস্থান করছেন তাদের নাগাল পাওয়্টাা আমাদের জন্য জরুরি। সুদানে অবস্থানরত সব কানাডিয়ান কূটনীতিক ও স্থানীয় কর্মীরা এর মধ্যে রয়েছেন এবং দূর থেকে আমরা তাদেরকে সব ধরনের সহায়তা দেওয়ার চেষ্টা করছি। কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে আমাদের কাজ করতে হচ্ছে। তারপরও আমরা সেখানে আছি। কানাডার দূতাবাসে যেখানে অবস্থিত সেখানে বর্তমানে যুদ্ধ চলছে।

এদিকে সুদানের সেনাবাহিনী বৃহস্পতিবার প্যারামিলিটারির সঙ্গে আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছে। এর ফলে সপ্তাহব্যাপী চলমান সহিংসতা জোরদারের পূর্বাভাস পাওয়া গেছে। এই সহিংসতায় কয়েকশ মানুষ নিহত হয়েছে এবং সুদানের লোকজন কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে পড়ে গেছে।

বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে, শনিবার শুরু হওয়া সহিংসতায় কমপক্ষে ৩৩০ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ৩ হাজার ৩০০ জন। কিন্তু সড়ক থেকে সব মৃতদেহ সংগ্রহ করা সম্ভব না হওয়ায় নিহতের সংখ্যা আরও বেশি হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

সহিংসতার মাত্রা আরও বৃদ্ধি পাবে বলে মনে করছে যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশ এবং তারা সুদান থেকে তাদের নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। অসংখ্যা বিমানবন্দরে যুদ্ধ চলায় এবং যুদ্ধরত গ্রুপগুলো লোকজনকে পালানোয় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করলেও এই প্রস্তুতি নিচ্ছে তারা।

তবে কানাডা আপৎকালীন কী ধরনের পরিকল্পনা বিবেচনা করছে সে ব্যাপারে কিছু বলেননি জোলি। তিনি বলেন, আমরা নিরবচ্ছিন্নভাবে পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছি এবং অন্যান্য দেশ, অংশীদার ও সহযোগীদের সঙ্গে কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। আমরা সবাই একই পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছি।

- Advertisement -

Read More

Recent