শুক্রবার - জুলাই ১৯ - ২০২৪

দীর্ঘমেয়াদী হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারেন আইসিস ক্যাম্প ফেরত কানাডিয়ানরা

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে বিদেশ থেকে চরমপন্থীরান হয়তো এখনই কোনো হামলা পরিচালনা করবে না কিন্তু সময় হলে হয়তো তারা তহবিল উত্তোলন করবে অথবা সদস্য সংগ্রহ করবে

সিরিয়ার ডিটেনশন ক্যাম্প থেকে যেসব আইসিস সদস্যকে সরকার ফিরিয়ে আনছে তারা নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে মনে করছে কানাডার গোয়েন্দা সংস্থা। কানাডিয়ান সিকিউরিটি ইন্টেলিজেন্স সার্ভিস (সিএসআইএস) তাদের বার্ষিক প্রতিবেদনে এই আশঙ্কার কথা তুলে ধরেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিদেশ থেকে চরমপন্থীরান হয়তো এখনই কোনো হামলা পরিচালনা করবে না। কিন্তু সময় হলে হয়তো তারা তহবিল উত্তোলন করবে অথবা সদস্য সংগ্রহ করবে। তারা মৌলবাদি প্রভাব, অত্যাচার ও সহিংসতা দেখেছে এবং অনেকে অস্ত্র ও বিস্ফোরণের প্রশিক্ষণও পেয়েছে।

- Advertisement -

কানাডিয়ান এক্সট্রিমিস্ট ট্রাভেলারস সংক্রান্ত সতর্কতামূলক শব্দগুলো এমন এক সময় সামনে এসেছে যখন গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা আইসিসের সঙ্গে যুদ্ধের সময় সিরিয়ায় আটকান পড়া কানাডিয়ানদের ফিরিয়ে আনছে। ৬ এপ্রিল ফরেন অ্যাফেয়ার্স ডিপার্টমেন্টচ সিরিয়ার আইসিস ডিটেনশন ক্যাম্প থেকে চার কানাডিয়ান নারীকে মন্ট্রিয়লে ফিরিয়ে এনেছে। সেখানে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরদিন তাদেরকে জামিনে মুক্তি দেওয়া হয়। তবে তাদের চলাফেরা সীমিত করে পিচ বন্ড আরোপের পরিকল্পনা করছে রয়্যাল কানাডিয়ান মাউন্টেড পুলিশ বা আরসিএমপি। সিরিয়া থেকে ফিরিয়ে আনা চতুর্থ নারীকে গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ।

গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা ও পাবলিক সেফটি কানাডা এ সময় এক বিবৃতিতে বলেছে, বিশ^ব্যাপীই সমমনা দেশগুলো উত্তরপূর্ব সিরিয়া থেকে তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনতে পদক্ষেপ নিচ্ছে।

আইসিস ক্যাম্প থেকে এডমন্টনের আরও দণন নারীকেও কানাডায় ফিরিয়ে আনা হয়েছে। কানাডার নাগরিকত্ব থাকা চারজন পুরুষকেও ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। সিএসআইএস তাদের প্রতিবেদনে লিখেছে, প্রায় এক দশক পর দায়েশের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কানাডিয়ান চরমপন্থ’ী ভ্রমণকারীরা সিরিয়া ও ইরাকের ক্যাম্প থেকে ফিরছে। যদিও তৎক্ষণাৎ অথবা সরাসরি কোনো চরমপন্থী কর্মকা-ে জড়াবে না। তারপরও তারা জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি। একটা সময়ে এসে তারা তহবিল সংগ্রহ, দেশীয় ও আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্কের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা এবং কর্মী সংগ্রহের মতো কাজে জড়িতে পড়তে পারে।

আইসিসে যোগদানের উদ্দেশে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কানাডিয়ান সিরিয়া ও ইরাক সফর করেন।

- Advertisement -

Read More

Recent