শুক্রবার - জুলাই ১৯ - ২০২৪

সোডিয়াম নাইট্রেট ব্যবহারকে যেভাবে উৎসাহিত করছে একটি ফোরাম

অস্ট্রেলিয়া ইতালি ও জার্মান সরকার এরই মধ্যে সাইটটি বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাজ্যের অন্তত একটি ইন্টারনেট প্রোভাইডার সাইটটিতে প্রবেশ নিয়ন্ত্রিত করেছে যুক্তরাষ্ট্রে ২০২২ সালে উত্থাপিত একটি বিলেও সরাসরি সাইটটির কথা বলা হয়েছে সেই সঙ্গে আত্মহত্যায় উৎসহ জোগানো ফৌজদারি শাস্তি হিসেবে ঘোষণা করার আহ্বান জানানো হয়েছে

মিসিসোগার বাসিন্দা কেনেথ ল সোডিয়াম নাইট্রেট ও অন্যান্য ক্ষতিকর পদার্থ বিক্রির কারণে ফৌজদারি অভিযোগের মুখে রয়েছেন। এর মধ্যেও একটি বিষয় রয়েছে যা এখনো অমীমাংসিত। তা হলো কীভাবে লর গ্রাহকরা তাকে খুঁজে পেলেন এবং তার পণ্য সম্পর্কে জানতে পারলেন। তার রয়েছে একটি সক্রিয় ওয়েবসাইট যেখানে সদস্যরা আত্মহত্যা নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা করতে পারেন।

ওয়েবসাইটে ঢু মেরে দেখা যায় সাইটটি যািরা ব্যবহার করছেন মধ্যে কানাডিয়ানদের সংখ্যা অনেক বেশি এবং নিজের ক্ষতি করার চিন্তা নিয়ে নিজেদের সঙ্গেই লড়াই করছেন তারা। একইভাবে ফোরামে এমন অনেক পোস্ট রয়েছে যেগুলোর উদ্দেশ্য লর ব্যবসার প্রতি তাদেরকে প্রলুব্ধ করা। সেই সঙ্গে অন্যদের পরামর্শ ও সোডিয়াম নাইট্রেট কিনতে তার সঙ্গে যোগাযোগে উদ্বুদ্ধ করা।

- Advertisement -

লর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো এখন পর্যন্ত আদালতে প্রমাণিত হয়নি। সিপি২৪ এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করলেও ওয়েবসাইটটির নাম উল্লেখ করেনি। সাম্প্রতিক বেশ কিছু মৃত্যুর ঘটনায় সাইটটি এর আগে যুুক্তরাজ্যে তদন্তের মুখে পড়ে। এসব মৃত্যুর মধ্যে অন্তত একটি ছিল সোডিয়াম নাইট্রেটের বিষক্রিয়ায়।

অস্ট্রেলিয়া, ইতালি ও জার্মান সরকার এরই মধ্যে সাইটটি বন্ধ করে দিয়েছে। যুক্তরাজ্যের অন্তত একটি ইন্টারনেট প্রোভাইডার সাইটটিতে প্রবেশ নিয়ন্ত্রিত করেছে। যুক্তরাষ্ট্রে ২০২২ সালে উত্থাপিত একটি বিলেও সরাসরি সাইটটির কথা বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে আত্মহত্যায় উৎসহ জোগানো ফৌজদারি শাস্তি হিসেবে ঘোষণা করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

কিন্তু কানাডায় সহজেই সাইটটি গুগলে অনুসন্ধান করা যাচ্ছে। কোনো প্রদেশই সাইটটিতে প্রবেশ নিয়ন্ত্রিত করেনি। অন্টারিওর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছেল এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো উত্তর দেয়নি তারা।

- Advertisement -

Read More

Recent