বুধবার - ফেব্রুয়ারি ২১ - ২০২৪

অভিবাসীরা পরিবারকে দ্রুত কানাডায় আনতে পারবেন

সরকার পরিবারের পুনর্মিলনের আবেদন অনুমোদনের নতুন ব্যবস্থা চালু করতে যাওয়ায় এই সুযোগ আসছে বলে শুক্রবার জানান অভিবাসনমন্ত্রী শন ফ্রেজার

নতুন অভিবাসীদের স্বামী-স্ত্রী, সন্তান ও বাবা-মায়েরা দ্রুত তাদের প্রিয়জনের সঙ্গে মিলিত হওয়ার সুযোগ পেতে যাচ্ছেন। সরকার পরিবারের পুনর্মিলনের আবেদন অনুমোদনের নতুন ব্যবস্থা চালু করতে যাওয়ায় এই সুযোগ আসছে বলে শুক্রবার জানান অভিবাসনমন্ত্রী শন ফ্রেজার।

পরিবারের যেসব সদস্য কানাডায় পারমানেন্ট রেসিডেন্সি স্ট্যাটাস চাইছেন তারা আবেদন অনুমোদন না হওয়া পর্যন্ত তাদের স্পন্সরদের সঙ্গে মিলিত হওয়ার জন্য অস্থায়ী ভিজিটর ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। যদিও ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও আবেদনকারীরা কানাডা না ছাড়তে পারেন এই আশঙ্কায় এ ধরনের ভিসা প্রায় সময়ই প্রত্যাখ্যাত হয়ে থাকে।

- Advertisement -

নতুন ব্যবস্থায় পারমানেন্ট রেসিডেন্সি স্ট্যাটাসের আবেদনকারীদের আবেদন উন্নত পদ্ধতিতে শনাক্ত করা যাবে এবং কানাডায় আসার জন্য তাদের ভিসা দ্রুত অনুমোদন করা হবে। এই সময় মাত্র ৩০ দিনে নেমে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেন অভিবাসনমন্ত্রী।
তিনি বলেন, এর অর্থ দাঁড়ায় যে, পরিবারের সদস্যরা দ্রুততম সময়ের মধ্যে কানাডায় আসতে পারবেন এবং আগের চেয়ে কম সময়ের মধ্যে তাদের প্রিয়জনদের সঙ্গে মিলিত হতে পারবেন।

নতুন পদ্ধতি ব্যক্তির আবেদন খতিয়ে দেখে তারা পারমানেন্ট রেসিডেন্সি পাবে কিনা তা নির্ধারণ করবে। যাদের সম্ভাবনা বেশি তাদেরকে সেই শ্রেণিতে রাখা হবে। যার ফলে তাদের সাময়িক ভিসা দ্রুত প্রক্রিয়াকরণ করা হবে। এখন পর্যন্ত নতুন এই পদ্ধতিতে আবেদন অনুমোদনের হার ৯৮ শতাংশের বেশি।

অভিবাসী আইনজীবী উইল টাও বলেন, এটা অবশ্যই একটা ঝাকুনি। আমার মনে হয় অনেক দিক থেকেই এটা ভালো উদ্যোগ। তিনি বলেন, অ্যাডভান্সড অ্যানালিটিকসের ব্যবহার বৃদ্ধিতে কিছু উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। সব সময়ই কিছুটা বৈষম্য থাকে।

ফ্রেজার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, বৈষম্য সংক্রান্ত সব ধরনের ভয় তিনি দূর করতে চান। অনুমোদন হার বিবেচনায় বিভাগ ব্যাপক উন্নতি করেছে। এর ফলে ফলাফলও ভালো হচ্ছে। কে আবেদন করছেণ সেই বিবেচনা না করেই। সিদ্ধান্ত সব সময়ই বিভাগের কর্মীরা নিয়ে থাকেন এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার কোনো ব্যবস্থার পক্ষে ভিসা প্রত্যাখ্যান বা অনুমোদন সম্ভব নয়।

সাময়িক ভিসাপ্রাপ্ত স্বামী-স্ত্রী বা নির্ভরশীল সন্তানদের উন্মুক্ত কাজের অনুমতিও দেওয়া হবে। তা তিনি কানাডার আসার আগেই আবেদন করুন বা পরে। এর মানে হচ্ছে স্বামী-স্ত্রীকে কানাডায় আসার পর কাজের জন্য আর অপেক্ষায় থাকতে হবে না। ফ্রেজার বলেন, তারা যাতে নিজেরাই নিজেদের ও পরিবারকে চালাতে পারেন সেটা নিশ্চিত করা জরুরি।

- Advertisement -

Read More

Recent