শনিবার - মার্চ ২ - ২০২৪

দাবানলের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা সহযোগিতা চুক্তি

কানাডার প্রাকৃতিক সম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী জোনাথন উইলকিনসন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন আমাদের সবেচেয় বেশি অগ্রাধিকার হচ্ছে কানাডিয়ানদের সুরক্ষিত রাখা

দাবানলের ব্যাপারে স্বাভাবিক সহযোগিতা জোগান দেওয়ার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে একটি চুৃক্তি স্বাক্ষর করেছে কানাডা। গত শুক্রবার চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়।

কানাডার প্রাকৃতিক সম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী জোনাথন উইলকিনসন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন, আমাদের সবেচেয় বেশি অগ্রাধিকার হচ্ছে কানাডিয়ানদের সুরক্ষিত রাখা। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে স্বাক্ষরিত এই চুক্তি জ্ঞান ও রিসোর্স বিনিময়ের মাধ্যমে কার্যকর সহযোগিতা নিশ্চিত করবে। সেই সঙ্গে সীমান্তের উভয় পাশে জীবিকা ও কমিউনিটিগুলোকে দাবানল থেকে রক্ষার উদ্যোগকে শক্তিশালী করবে।

- Advertisement -

ন্যাচারাল রিসোর্সেস কানাডা এবং ইউএস ডিপার্টমেন্টস অব এগ্রিকালচার অ্যান্ড ইন্টিরিয়রের মধ্যে চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়েছে। উভয় দেশের কর্মকর্তারা বলছেন, চুক্তির ফলে দাবানল দমনের রিসোর্স বিনিময় করা যাবে। এর মূল উদ্দেশ্য উত্তর আমেরিকার নাগরিকদের নিরাপত্তা জোরদার করা।

এ ছাড়া উভয় দেশের যেসব এলাকায় বেশি প্রয়োজন সেসব এলাকায় সহায়তা সরবরাহ করা হবে এই চুক্তির আওতায়। এটা করা হবে প্রতিরোধ ব্যবস্থা, গবেষণা, উদ্ভাবন, কারিগরি সহযোগিতা ও ঝুঁকি প্রশমনের মধ্য দিয়ে।

যুক্তরাষ্ট্রের কৃষিমন্ত্রী টম ভিলসাক বলেন, উত্তর আমেরিকাজুড়ে দাবানল মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার একসঙ্গে কাজ করার দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে। গর্বিত এই ইতিহাসের ওপর দাঁড়িয়েই্ এই চুক্তি। যেহেতু জলবায়ু পরিবর্তন কমিউনিটি, অবকাঠামো, বনের ওপর অব্যাহতভাবে হুমকি সৃষ্টি করছে, তাই একসঙ্গে কাজ করার নতুন উপায় খুঁজে বের করাটা খুব জরুরি।

এই চুক্তি দাবানল ব্যবস্থাপনা জ্ঞান সম্প্রসারণের একটা সুযোগ করে দেবে। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে দাবানল মৌসুম খারাপের দিকে যাওয়ায় এটা জরুরি হয়ে পড়েছে। ন্যাশনাল ওয়াইল্ডলাইফ ফায়ার স্টেশন রিপোর্টের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছর কানাডায় ২ হাজার ৭০০ দাবানলের ঘটনা ঘটেছে।

জুনের গোড়ার দিকে দাবানল মোকাবিলায় কানাডাকে সহায়তার উদ্দেশে কয়েক শ মার্কিন ফায়ারফাটার এসেছে। সব মিলিয়ে এ বছর আগুন নিয়ংন্ত্রণে কানাডাকে সহায়তা করেছেন দেড় হাজার মার্কিনী।

- Advertisement -

Read More

Recent