সোমবার - জুন ১৭ - ২০২৪

ক্ষমা চাইল মেট্রোলিংকস ও উবার কানাডা

সম্প্রতি টরন্টোর একটি কনসার্টে যোগ দিতে গিয়ে অক্ষমতা নিয়ে বৈষ্যমের শিকার হয়েছেন হুইটবির এক নারী এ ঘটনায় মেট্রোলিংকস ও উবার কানাডা ক্ষমা চেয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি

সম্প্রতি টরন্টোর একটি কনসার্টে যোগ দিতে গিয়ে অক্ষমতা নিয়ে বৈষ্যমের শিকার হয়েছেন হুইটবির এক নারী। এ ঘটনায় মেট্রোলিংকস ও উবার কানাডা ক্ষমা চেয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

গত ৯ জুন ২১ বছর বয়সী হান্নাহ ওয়াকার এবং তার বন্ধু ২৪ বছর বয়সী সারা স্টোন ওশাওয়া থেকে বিকাল ৫টা ৯ মিনিটে গো ট্রেনে চড়েন। অন্টারিও প্লেসের বাডওয়াইজার স্টেজে সাড়ে ৭টায় অনুষ্ঠিত চার্লি পাথ শো দেখতে যাচ্ছিলেন তারা। এর কিছুক্ষণ পরই ট্রেনের একজন অ্যাটে›ন্ডেন্ট বলেন, এক্সিবিশন গো স্টেশনের দক্ষিণ দিকের এলিভেটর কাজ করছে না এবং ভেন্যুতে যাওয়ার একমাত্র মাধ্যম সিঁড়ি।

- Advertisement -

দক্ষিণ দিকের এলিভেটর আসলে ওই এলাকায় নির্মাণকাজের জন্য সীমিত করে দেওয়া হয় এবং সম্প্রতি সেটি খুলে দেওয়া হয়েছে। জুনের ওই ঘটনা স্মরণ করে স্টোন বলেন, তিনি বিষয়টি আরও অনুসন্ধান করে দেখার জন্য দ্রুত গোকে আহ্বান জানান। তাকে বলা হয়, তার বন্ধুর শাটলে বাডওয়াইজার স্টেজে যাওয়ার দরকার হলে ২৪ ঘণ্টা আগে যোগাযোগ করার প্রয়োজন ছিল।

এরপর ওয়াকার বলেন, ভ্রমণের আগে গো ট্রানজিটের ওেেয়বসাইটে চোখ বোলানোর বিষয়টি কখনোই তার মাথায় আসেনি। চলাচলের সক্ষমতা যাই হোক না কেন সময়োপযোগী অ্যাকোমোডেশন ব্যবস্থা থাকা দরকার ছিল। অনলাইন দেখে নিতে হবে এমন ধারণা আমাদের ছিল না এবং কোনো শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী কোনো ব্যক্তিকে দুই দিন আগে জানাতে হবেÑএই বিষয়টিও অন্যায়। তাছাড়া একজন ব্যক্তির চলাচল কেমন হবে সবসময় তা আন্দাজ করাও যায় না। আমার ধারণা আমিই প্রথম ব্যক্তি নই, যাকে স্টেশনে হুইলচেয়ার ব্যবহার করতে হয়েছে।

স্টোন বলেন, তাদেরকে বাডওয়াইজার স্টেজে হেঁটে যেতে বলা হয়। এজন্য চার থেকে পাঁচ মিনিট সময় লাগবে বলে গো কর্মী জানান। কিন্তু ম্যাপ অ্যাপ্লিকেশন অনুযায়ী সেটা আসলে ৪০ মিনিটের পথ।

হতাশ হয়ে তারা তখন ভেন্যুতে যাওয়ার জন্য উবার বুক করার চেষ্টা করেন। প্রাথমিকভাবে স্টোন হুইলচেয়ারের সুবিধা আছে এমন একটি ট্রিপ বুক করেন। কিন্তু সেটি আর আসে না। এরপর তিনি উবার এক্সএল বুক করেন। হুইল চেয়ারের চাহিদার কথা জানালে চালক এরপর বুকিং বাতিল করে দেন। এরপর তিনি আরেকটি উবার এক্সএল ট্রিপ বুক করেন এবং পিক-আপ পয়েন্টে চালক আসেনও। কিন্তু হুইল চেয়ার পরিবহন করা সম্ভব নয় বলে ওয়াকার ও স্টোনকে জানান চালক। এমনকি তিনি এজন্য চেষ্টাটাও করেননি। চালকের ব্যবহার আগ্রাসী ছিল এবং কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর তিনি সেখান থেকে চলে যান। তৃতীয় উবার ট্রিপ ওয়াকার এবং স্টোন না নিলেও ভাড়া আসে। উভয়েই বিষয়টি উবার কানাডাকে জানান। কিন্তু ততক্ষণে কনসার্ট শেষ হয়ে গেছে।

এ ঘটনায় উবার কানাডার একজন মুখপাত্র সিপি২৪কে বলেন, উবার প্ল্যাটফরমে বৈষম্যের কোনো জায়গা নেই এবং অ্যাপ ব্যবহারকারী সব চাল হুইল চেয়ার নেওয়ার ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছেন। রাইডারদের অভিযোগ তদন্তের জন্য তাদের একটি টিম রয়েছে এবং এ ব্যাপারে তারা উপযুক্ত পদক্ষেপ নেবে।

এক্সএল রাইড না নেওয়ার পরও ওয়াকারের কাছ থেকে নেওয়ার কারণে উবার তাকে ২০ ডলার ক্রেডিট দিয়েছে।

এ ছাড়া গ্রাহকের সঙ্গে যা হয়েছে সেজন্য ক্ষমা চেয়েছে মেট্রোলিংকস। বিষয়টি নিয়ে তারা একটি বিবৃতিও দিয়েছে।

- Advertisement -

Read More

Recent