শুক্রবার - মে ২৪ - ২০২৪

সুদের হার বৃদ্ধিতে ইতি টানছে ব্যাংক অব কানাডা?

ব্যাংক অব কানাডা তাদের সুদের হার বৃদ্ধির প্রচারণায় ইতি টানতে পারে বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা

স্ট্যাটিস্টিকস কানাডার জিডিপি সংক্রান্ত সাম্প্রতিক উপাত্ত কানাডার অর্থনীতির সংকোচনের ইঙ্গিত দিচ্ছে। এর ফলে ব্যাংক অব কানাডা তাদের সুদের হার বৃদ্ধির প্রচারণায় ইতি টানতে পারে বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা।

স্ট্যাটিস্টিকস কানাডার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আবাসনে বিনিয়োগ অব্যাহতভাবে কমতে থাকায় দ্বিতীয় প্রান্তিকে কানাডার অর্থনীতিতে স্থবিরতা সৃষ্টি হয়েছে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। নতুন নির্মাণ হ্র্সা পাওয়ার কারণে আবাসনে বিনিয়োগের এই নি¤œগতি। দ্বিতীয় প্রান্তিকে কানাডার অর্থনীতি বার্ষিক দশমিক ২ শতাংশ হারে সংকুচিত হয়েছে। পূর্বাভাসদাতাদের ধারণার চেয়ে যা অনেক দুর্বল।

- Advertisement -

দ্বিতীয় প্রান্তিকের এই সংকোচন দেখা দিয়েছে আবাসনে বিনিয়োগ ২ দশমিক ১ শতাংশ হ্রাসের কারণে। এই নিয়ে টানা পঞ্চম প্রান্তিকের মতো কানাডায় আবাসনে বিনিয়োগ হ্রাস পেয়েছে। দ্বিতীয় প্রান্তিকে নতুন নির্মাণ কমেছে ৮ দশমিক ২ শতাংশ। অন্যদিকে সংস্কারে ব্যয় কমেছে ৪ দশমিক ৩ শতাংশ।

ব্যাংক অব কানাডার সুদের হার বৃদ্ধির কারণে ঋণে ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়ায় আবাসনে বিনিয়োগের এই হ্রাস। নীতিনির্ধারণী সুদের হার বৃদ্ধিল মধ্য দিয়ে ব্যাংক অব কানাডা মূল্যস্ফীতি তাদের ২ শতাংশ লক্ষ্যমাত্রার মধ্যে আনতে চাইছে।

অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড কনসালটেন্সি ফার্ম আরএসএম কানাডার অর্থনীতিবিদ তু এনগুয়েন বলেন, মূল্যস্ফীতির হার আরেক দফা না বাড়লে ব্যাংক অব কানাডার সুদের হার বাড়ানো যে আর উচিত হবে না অর্থনীতির এই নিস্তেজতায় তার প্রমাণ। ব্যাংকের উদ্দেশ্য হচ্ছে শেষ পর্যন্ত মূল্য স্থিতিশীল রাখঅ। মন্দা ডেকে আনা তাদের লক্ষ্য নয়। সুতরাং, ব্যাংক তাদের অলক্ষ্য অর্জন করছে বলে মনে হচ্ছে।

স্ট্যাটিস্টিকস কানাডার তথ্য অনুযায়ী, দ্বিতীয় প্রান্তিকে পণ্য ও সেবা রপ্তানিতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে দশমিক ১ শতাংশ। প্রথম প্রান্তিকে প্রবৃদ্ধি হয়েছিল যেখানে ২ দশমিক ৫ শতাংশ। এ সময়ে পরিবারগুলোর ব্যয় কমেছে দশমিক ১ শতাংশ। প্রথম প্রান্তিকে যেখানে পরিবারগুলোর ব্যয় কমেছিল ১ দশমিক ২ শতাংশ।

- Advertisement -

Read More

Recent