শনিবার - মার্চ ২ - ২০২৪

তেল আবিবে ফ্লাইট বাতিল করেছে এয়ার কানাডা

ইসরায়েলে হামলার পর রোববার থেকে তেল আবিবে ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করেছে এয়ার কানাডা

ইসরায়েলে হামলার পর রোববার থেকে তেল আবিবে ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করেছে এয়ার কানাডা। এক বিবৃতিতে এয়ারলাইন্সটি বলেছে, নাটকীয় এই পরিস্থিতির দিকে আমরা ঘনিষ্ঠ নজর রাখছি এবং প্রয়োজনানুযায়ী আমরা এই পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনব। আমরা কানাডিয়ান সরকারের সঙ্গে যোগারেযাগ রক্ষা করে চলেছি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তেল আবিবে কার্যক্রম পুনরায় শুরু করবে এয়ার কানাডা।

এয়ার কানাডা বলেছে, এই সিদ্ধান্তের ফলে তেল আবিবগামী বা তেল আবিব ছাড়তে চাওয়া যেসব যাত্রী ক্ষতিগ্রস্ত হবেন তারা এখন তাদের ভ্রমণ পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনতে পারবেন। চাইলে অর্থ ফেরতও পাবেন তারা।

- Advertisement -

এয়ার কানাডা টরন্টো ও তেল আবিবের মধ্যে দৈনিক ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে। এ ছাড়া মন্ট্রিয়ল থেকৈ তেল আবিবেও সপ্তাহে তিনটি ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে এয়ারলাইন্সটি।

গত ৭ অক্টোবর হামাস অকস্মাৎ ইসরায়েলে স্থল, বিমান ও নৌ হামলা চালায়। জবাবে ইসরায়েল গাজায় বিমান হামলা চালায়। হামলায় শত শত মানুষ নিহত ও হাজার হাজার মানুষ আহত হয়েছেন।

গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডার তথ্য অনুযায়ী, ইসরায়েলে থাকা ১ হাজার ৪১৯ জন কানাডিয়ানের নাম রয়েছে রেজিস্ট্রেশন অব কানাডিয়ান অ্যাব্রোডের তালিকায়। ফিলিস্তিনী ভূখন্ডে রয়েছে ৪৯২ জন কানাডিয়ান।

গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স বলেছে, এই নিবন্ধন ঐচ্ছিক হওয়ায় এতে দেশের বাইরে থাকা কানাডিয়ানদের পূর্ণাঙ্গ ছবিটা পাওয়া যাবে না। এমনকি দেশের বাইরে থাকা কত সংখ্যক কানাডিয়ান সেখানে থাকতে চান অথবা ওই দেশ ছাড়তে চান সে ইঙ্গিতও পাওয়া সম্ভব নয় এ থেকে।

তেল আবিব ও রামাল্লায় কানাডিয়ান দূতাবাসের সব কর্মকর্তা নিরাপদে আছেন বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। তারা বলেছে, কানাডা ইসরায়েল, পশ্চিম তীর ও গাজা ভূখ-ে কানাডিয়ানদের উচ্চ সতর্কতা অবলম্বনের আহ্বান জানাচ্ছে। অপ্রত্যাশিত নিরাপত্তা পরিস্থিতির কারণেই এই আহ্বান জানানো হচ্ছে।

- Advertisement -

Read More

Recent