রবিবার - জুলাই ১৪ - ২০২৪

অন্টারিও এনডিপি নেতার অফিসে হানা

অন্টারিও এনডিপির নেতা মারিট স্টাইলিসের সংসদীয় অফিসে ২৪ অক্টোবর হানা দেওয়া হয়েছে

অন্টারিও এনডিপির নেতা মারিট স্টাইলিসের সংসদীয় অফিসে ২৪ অক্টোবর হানা দেওয়া হয়েছে। ককাস থেকে এমপিপি সারাহ জামাকে বের করে দেওয়ার একদিন পর এ ঘটনা ঘটল।

টরন্টোর ড্যাভেনপোর্টে অবস্থিত তার কার্যালয়ের যে ছবি তাতে দেখা যায়, জানালায় ‘ফ্রি প্যালেস্টাইন’ এবং ‘ব্লাড অন ইওর হ্যান্ড’ সাটানো। স্টাইলিসের সব ছবি লাল কালিতে ঢেকে দেওয়া হয়েছে।

- Advertisement -

কুইন’স পার্কে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এনডিপি নেতা বলেন, ২৪ অক্টোবরের এই ঘটনা সম্পর্কে তিনি অবগত আছেন। আমার কর্মীরা ভালো আছেন। সঙ্গে সঙ্গেই আমি তাদের খোঁজ-খবর নিয়েছি। এ ব্যাপারে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব।

স্টাইলিস বলেন, একজন রাজনীতিকের কার্যালয়ে এ ধরনের ঘটনা ঘটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। এটা বিভক্ত কমিউনিটির নির্দশন। জনগণকে বিভক্ত না করে তাদেরকে ঐক্যবদ্ধ করার সময় এখন। আমি মনে করি সরকার এসব বিভাজনের কোনো কোনোটিতে ইন্ধন জুগিয়েছে। এবং বিপুল সংখ্যক মানুষের জন্য বিষয়টিকে ঘোষাসাপূর্ণ করে তুলেছে।

ইসরায়েল-গাজায় যুদ্ধ বিরতির ব্যাপারে অন্টারিও এনডিপির দাবি পুনর্ব্যক্ত করেছেন স্টাইলিস। সেই সঙ্গে দ্রুততম সময় মানবিক সহায়তা প্রদান ও বন্দিদের মুক্তির দাবি জানিয়েছেন।

বিক্ষুব্ধ কয়েকটি সপ্তাহ শেষে জামাকে সম্প্রতি এনডিপি ককাস থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। ওই সময়ে তিনি ফিলিস্তিনি ভূখ-ে ইসরায়েলি বর্ণবাদী দখলদারিত্বের অবসান চাইলে তা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন।

এনডিপি বলেছে, তার মতামতের কারণে তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়নি। ককাস থেকে তাকে বহিস্কারের কারণ. কর্মীদের সঙ্গে সঠিকভাবে আলোচনা না করেই তারা নানা পদক্ষেপ গ্রহণ। প্রিমিয়ারের কাছে সিজ-অ্যান্ড-ডিসিস্ট লেটার পাঠানো এর মধ্যে অন্যতম।
এনডিপি এমপিপি ডলি বেগম আইনসভায় স্টাইলিসের পাশে দাঁড়িয়ে বলেন, জামাকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার প্রস্তাবের বিরুদ্ধে এনডিপি ভোট দিয়েছে, যাতে করে তিনি কথা বলতে পারেন।

তিনি বলেন, আমাদের নিজস্ব কমিউনিটিতে, স্টাফ সমদ্যদের মধ্যে, আমাদের পরিবারে সেইসব মানুষ রয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত উভয় পক্ষের সঙ্গেই যারা সম্পৃক্ত। এই যুদ্ধে আমি কিছু বন্ধু ও পারিবারিক সদস্য হারিয়েছি। লোকজন মারা যাচ্ছে। মূল বিষয় হলো ফিলিস্তিনের পক্ষে এনডিপির অবস্থান নিয়ে লোকজন প্রশ্ন তুলছেন। এটা সত্যিই হতাশাজনক।

- Advertisement -

Read More

Recent