শুক্রবার - মে ২৪ - ২০২৪

গাজা ছেড়ে আরও বিদেশির মিশরে প্রবেশের অপেক্ষা

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলানি জোলি বলেছেন বৃহস্পতিবার রাফাহ সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার আরেকটি সুযোগ আসতে পারে বলে শুনেছি কানাডিয়ানরা সেই সুযোগ পাবেন কিনা সে ব্যাপারে কিছু বলেননি তিনি

যুদ্ধবিধ্বস্ত গাজা ছেড়ে বিদেশি নাগরিকদের মিশরে প্রবেশ সামনের দিনেও অব্যাহত থাকবে বলে মনে করছে ফেডারেল সরকার। যদিও কানাডিয়ান নাগরিকদের এই বলে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে যে, সীমান্ত অতিক্রমের ক্ষেত্রে নিরাপত্তার কোনো নিশ্চয়তা নেই।

গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা জানিয়েছে, রাফা সীমান্ত দিয়ে একজন কানাডিয়ান ফিলিস্তিনি ভূখ- অতিক্রমে সক্ষম হয়েছে বলে তারা জানতে পেরেছে। তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে সীমান্ত অতিক্রম করতে সক্ষম হন। এ ব্যাপারে আর কোনো তথ্য দেয়নি গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা।

- Advertisement -

যেসব দেশের নাগরিকদের সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে সেসব দেশের তালিকা মঙ্গলবার প্রকাশ করেছে গাজার জেনারেল অথরিটি ফর বর্ডার ক্রসিংস। সেখানে অস্ট্রেলিয়া, অস্ট্রিয়া, বুলগেরিয়ো, চেক রিপাবলিক, ফিনল্যান্ড, জাপান ও জর্ডানের নাম থাকলেও কানাডার নাম নেই।

গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গাজায় কানাডার উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নাগরিক রয়েছেন। তালিকায় যেসব দেশের নাম উল্লেখ করা হয়েছে সেসব দেশের বাসিন্দারা সংখ্যায় অত বেশি নন। সামনের দিনগুলোতে আমরা আরও বেশি সংখ্যক মানুষের সীমান্ত অতিক্রমের আশা করছি।

সব কানাডিয়ানকে সীমান্ত অতিক্রমের অনুমতি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। অটোয়াতে তিনি বলেন, আমরা হামাসের ঘৃণ্য সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে নিন্দা অব্যাহত রাখব। পাশাপাশি ইসরায়েলের নিজেদের রক্ষার অধিকারের প্রতি সমর্থন করে যাব। কিন্তু ন্যায়বিচারের মূল্য বেসামরিক ফিলিস্তিনিদের অব্যাহত দুর্ভোগ হতে পারে না। আমরা অপহৃতদের মুক্তি দাবি করছি। সেই সঙ্গে গাজায় যাতে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছায় সেই দাবি জানাচ্ছি। পাশাপাশি কানাডিয়ান ও তাদের পরিবারের সদস্যদের যেনো রাফাহ সীমান্ত দিয়ে গাজা ত্যাগের সুযোগ দেওয়া হয় সেই আহ্বানও জানাচ্ছি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলানি জোলি বলেছেন, বৃহস্পতিবার রাফাহ সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার আরেকটি সুযোগ আসতে পারে বলে শুনেছি। কানাডিয়ানরা সেই সুযোগ পাবেন কিনা সে ব্যাপারে কিছু বলেননি তিনি।

এদিকে গাজায় আটকা পড়া এক কানাডিয়ান নাগরিকের কন্যা বলেছেন, তার বাবাকে এই বলে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে যে, যারা গাজা থেকে মিশরে যাওয়ার চেষ্টা করবেন তাদের নিরাপত্তার কোনো নিশ্চয়তা ফেডারেল সরকার দিতে পারবে না। অন্টারিওর লন্ডনের বাসিন্দা ডালিয়া সেলিম তার ৬৬ বছর বয়সী পিতাকে গাজা থেকে বের করে আনার চেষ্টা করছেন। গ্লোবালঅ্যাফেয়ার্স কানাডায় নিবন্ধিত পরিবারগুলোর কবাছে পাঠানো একটি ইমেইল তিনি শেয়ার করেছেন।

ইমেইলে বলা হয়েছে, রাফাহ সীমান্ত অতিক্রমের সিদ্ধান্ত আপনার একান্তই নিজস্ব এবং কানাডা সরকার আপনার সুরক্ষা ও নিরাপত্তার কোনো নিশ্চয়তা দিতে পারছে না।

এই ইমেইলের ব্যাপারে জানতে চাইলে গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডার পক্ষ থেকে কোনো উত্তর দেওয়া হয়নি। এমনকি ইমেইলের বিষয়বস্তু বা এটা কতটা সঠিক সে ব্যাপারেও কিছু জানানো হয়নি। এ ছাড়া কন্স্যুলার জেনারেল কেন রাফা সীমান্তে নেই উত্তর মেলেনি সেই প্রশ্নেরও।

- Advertisement -

Read More

Recent