শনিবার - মার্চ ২ - ২০২৪

নতুন কন্ডোমিনিয়াম খাতে মন্থরতা

আরবানেশন বলেছে প্রান্তিক হিসাবে গত ২০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম কন্ডোমিনিয়াম বিক্রি হয়েছে ২০২৩ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে

চলতি বছরের এখন পর্যন্ত গ্রেটার টরন্টো এরিয়াতে (জিটিএ) যত সংখ্যক নতুন কন্ডোমিনিয়াম বিক্রি হয়েছে তা গত এক দশকের মধ্যে সর্বনি¤œ। ২০২৩ সালের শুরু থেকে এ পর্যন্ত দশ হাজার ইউনিটের কিছু কম কন্ডো বিক্রি হয়েছে। আরবানেশনের নতুন এক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।

আরবানেশনের ২০২৩ সালের তৃতীয় প্রান্তিকের কন্ডোমিনিয়াম মার্কেট সার্ভের ফলাফল অনুযায়ী, জিটিএতে কন্ডোমিনিয়াম বিক্রি হয়েছে ৯ হাজার ৫৬৮ ইউনিট, ২০২২ সালের একই সময়ের তুলনায় যা ৪৭ শতাংশ কম। তবে তৃতীয় প্রান্তিকে নতুন কন্ডো ইউনিট বিক্রি হয়েছে ২ হাজার ৬৬৪টি, যা ২০২২ সালের তৃতীয় প্রান্তিকের তুলনায় ৪০ শতাংশ বেশি। এর কারণ মূলত দ্রুত সুদের হার বৃদ্ধি, যা ক্রয়-পূর্ব কার্যক্রম থামিয়ে দেয়।

- Advertisement -

আরবানেশন বলেছে, প্রান্তিক হিসাবে গত ২০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম কন্ডোমিনিয়াম বিক্রি হয়েছে ২০২৩ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে। স্বল্প সংখ্যক নতুন প্রকল্পের কারণেও নতুন কন্ডোর বিক্রি প্রভাবিত হয়েছে। ২০২৩ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে বিক্রির জন্য প্রস্তাব করা হয় মোট ২ হাজার ৪৯১টি কন্ডো ইউনিট। এক বছর আগের একই প্রান্তিকের তুলনায় সংখ্যাটি ২৩ শতাংশ কম। বার্ষিক হিসাবে বিক্রির জন্য মোট কন্ডো ইউনিট প্রস্তাব করা হয়েছে ১৩ হাজার ১৯৭টি, যা এক বছর আগের তুলনায় ৩৬ শতাংশ কম।
আরবানেশন বলছে, ২০২৩ সালে ৪০টি প্রকল্পের আওতায় ১৩ হাজার ৭২১টি ইউনিট উন্মোচনের কথা ছিল।কিন্তু সেগুলো এখনো তাকবন্দি অবস্থায় রয়েছে।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, জিটিএতে ২০২৩ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে ১ হাজার ৭৯৮টি নতুন কন্ডোমিনিয়ামের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে, যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৮৬ শতাংশ কম। গত দশ বছরে যেকোনো তৃতীয় প্রান্তিকের মধ্যে এটি সর্বনিম্ন।
বিক্রির পাশাপাশি কন্ডোমিনিয়ামের দামও নিম্নমুখী। আরবানেশনের তথ্য অনুযায়ী, তৃতীয় প্রান্তিকে বিক্রির জন্য উন্মোচন করা ইউনিটের গড় বিক্রয় মূল্য প্রতি বর্গফুট ১ হাজার ২১৬ ডলার, এক বছর আগের তুলনায় যা ১৮ শতাংশ কম। গত বছর কন্ডোমিনিয়ামের গড় বিক্রয় মূল্য বর্গফুটপ্রতি রেকর্ড বেড়েছিল।

This article was written by Rezaul Haque as part of the LJI

- Advertisement -

Read More

Recent