বৃহস্পতিবার - এপ্রিল ১৮ - ২০২৪

গাজার সমর্থনে বিক্ষোভকারীদের রেস্তোরাঁ ঘেরাও

ফিলিস্তিনপন্থী কয়েক শ বিক্ষোভকারী ভ্যানকুভারের একটি চায়নাটাউন রেস্তোরাঁ ১৪ নভেম্বর রাতে ঘেরাও করেন

ফিলিস্তিনপন্থী কয়েক শ বিক্ষোভকারী ভ্যানকুভারের একটি চায়নাটাউন রেস্তোরাঁ ১৪ নভেম্বর রাতে ঘেরাও করেন। প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো রেস্তোরাঁটিতে সে সময় রাতের খাবার খাচ্ছিলেন। ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধবিরতির দাবিতে স্লোগানরত লোকদের নিবৃত করতে ভ্যানকুভারের শতাধিক পুলিশ সেখানে পাঠানো হয়।

সার্জেন্ট স্টিভ আডিসন বলেন, একজন বিক্ষোভকারীকে নিবৃত করতে পুলিশ টেজার ব্যবহার করে। একজন পুলিশ কর্মকর্তার ওপর হামলার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আরেক বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করা হয় পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে।

- Advertisement -

সংবাদ সম্মেলনে আডিসন বলেন, বিক্ষোভকারীদের কর্মকা- সম্পর্কে পুলশ অবগত ছিল। তাদের ব্যারিকেড দেওয়ার বিষয়টিতেও তারা অবগত ছিল।প্রায় আড়াই শ ব্যক্তির ওই বিক্ষোভে ১০০ কর্মকর্তাকে ডেকে পাঠানো হয়। প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো যাতে রেস্তোরাঁ থেকে নিরাপদে বের হতে পারেন সেজন্য বিক্ষোভকারীদের নিয়ন্ত্রণের জন্য কর্মকর্তাদের সেখানে পাঠানো হয়।

ভিডিওতে ফিলিস্তিনি পতাকা হাতে বিক্ষোভকারীদেরচায়নাটাউনের মাইন স্ট্রিটের বাঘিরা রেস্টুরেন্ট অ্যান্ড বারের শ্লোগান দিতে দেখা যায়। আডিসন বলেন, ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার কোকিটলামের গ্রেপ্তারকৃত ২৭ বছর বয়সী ওই ব্্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের সুপারিশ করতে পারে পুলিশ। বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার চেষ্টার সময় ওই পুলিশ কর্মকর্তা মুখে আঘাত পান। ওই কর্মকর্তাকে পরে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে আরেক বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে ছেড়ে দেওয়া হলেও তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে বলে জানান আডিসন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের মুখোমুখি হওয়ার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার বিষয়টি তারা জানেন। তবে এ ব্যাপারে পুলিশের পদক্ষেপের ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানাননি তিনি।

- Advertisement -

Read More

Recent