শুক্রবার - মে ২৪ - ২০২৪

২০২৪ সালে আরও কানাডিয়ানকে উচ্চ সুদহারের পীড়ন সইতে হবে

ব্যাংক অব কানাডার সাবেক ডেপুটি গভর্নর পল বোড্রি বলেন ব্যাংক অব কানাডার ব্যবহৃত সুদের হার বৃদ্ধির পন্থা লোকজনের ওপর বিভিন্নভাবে প্রভাব ফেলেছে

মূল্যস্ফীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের একটি বছর শেষ হতে যাচ্ছে। ব্যাংক অব কানাডার মূল্য স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আর চেষ্টা আগামী বছর শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ব্যাংক অব কানাডার আগ্রাসী সুদের হার বৃদ্ধির ফল অবশেষে পাওয়া যাচ্ছে। গত কয়েক মাস ধরে কেন্দ্রীয় ব্যাংক তাদের নীতিনির্ধারণী সুদের হার ৫ শতাংশে অপরিবর্তিত রেখেছে। ব্যায়বহুল ঋণ ব্যবসায় নতুন বিনিয়োগ, ভোক্তা ব্যয়ের রাশ টেনে ধরেছে, যা নিম্ন মূল্যস্ফীতির পথ তৈরি করে দিয়েছে।

- Advertisement -

অর্থনৈতিক মন্থরতা ২০২৪ সালের মাঝামাঝি নাগাদ সুদের হার কর্তনের ভিত্তি তৈরি করে দিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। একে মূল্যস্ফীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সন্ধিক্ষণ হিসেবে দেখা হচ্ছে।

দেজারডিন’সের প্রধান অর্থনীতিবিদ জিমি জঁ বলছেন, ব্যাংক অব কানাডার সুদের হার বৃদ্ধি মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করেছে সত্য। একই সঙ্গে বৈশ্বিক মূল্যচাপও সহনীয় হওয়াও পণ্য মূল্য বৃদ্ধির গতি কমিয়ে এনেছে। আমরা এখন মূল্যস্ফীতির হার ৩ দশমিক ১ শতাংশ দেখতে পাচ্ছি। এক বছর আগের তুলনায় এখন যা অনেক কম চাপের। আমি মনে করি, ব্যাংক কানাডার পদক্ষেপের অংশ এটি। তবে আরেকটি বিষয়ও আছে।

সরবরাহ ব্যবস্থার সংকট এবং উচ্চ জ্বালানি মূল্যেল মতো কিছু বৈশি^ক বিষয়, যেগুলো মূল্য বৃদ্ধিতে ভূমিকা রেখেছিল সেগুলো দূর হয়ে গেছে। উচ্চ সুদের হার এখন বাকি কাজ করছে।

মূল্য স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনা হবে কানাডিয়ান বিশেষ করে নিম্ন আয়ের পরিবারের জন্য ভালো সংবাদ। উচ্চ গ্রোসারি বিল ও ভাড়ার কারণে যাদের সবচেয়ে বেশি ভুগতে হচ্ছে। কিন্তু কিছু পীড়ন ছাড়া স্বল্প ও স্থিতিশীল মূল্যস্ফীতিতে ফেরা সম্ভব নয়।

ভ্যারিয়েবল রেট মর্টগেজ গ্রাহকরা সুদের হার বৃদ্ধির পীড়ন সবার আগে টের পেয়েছেন। কিন্তু সময় যত গড়াচ্ছে অন্য বাড়ির মালিকদের ওপরও তা ছড়িয়ে পড়ছে। আরও বেশি সংখ্যক কানাডিয়ানকে আগামী বছর উচ্চ সুদের হার তাদের মর্টগেজ নবায়ন করতে হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে, যা তাদেরকে অন্যান্য ব্যয় কমিয়ে আনতে বাধ্য করবে।

ব্যাংক অব কানাডার সাবেক ডেপুটি গভর্নর পল বোড্রি বলেন, ব্যাংক অব কানাডার ব্যবহৃত সুদের হার বৃদ্ধির পন্থা লোকজনের ওপর বিভিন্নভাবে প্রভাব ফেলেছে। একটি অংশে সুদের হার হ্রাসের ফলে সুবিধাভোগী গ্রুপগুলোর কথা আপনাকে ভুলে গেলে চলবে না। অন্যদিকে আরেকটি গ্রুপ আছে, যারা সুদের হার বৃদ্ধির ফলে আরও বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ব্যাংক অব কানাডার গবেষকদের মতে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সুদের হার বৃদ্ধির আগে নেওয়া প্রায় ৪৫ শতাংশ মর্টগেজের কিস্তি পরিশোধের পরিমাণ নভেম্বর থেকে বৃদ্ধি পেয়েছে। এই গ্রুপের অবশিষ্ট সব মর্টগেজ গ্রাহক ২০২৬ সালের শেষ নাগাদ তা নবায়ন করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। অর্থাৎ, তাদেকে বেশি অর্থ পরিশোধ করতে হবে।

মর্টগেজ নবায়নের এই ঢেউ অর্থনীতির ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। পূর্বাভাসদাতারা বলছেন, ২০২৪ সালের শেষ দিকে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানোর আগ পর্যন্ত তা দুর্বলই থাকবে। দুর্বল অর্থনীতির কারণে চাকরির সুযোগ তৈরি হবে কম এবং বেতন বৃদ্ধির হারও শ্লথ হবে।

নভেম্বরে কানাডায় বেকারত্বের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ দশমিক ৮ শতাংশ। আগামী বছরও এই প্রবণতা অব্যাহত থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ডেজারডিন’সের পুর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী বছরের প্রথম প্রান্তিকে বেকারত্বের হার বেড়ে দাঁড়াবে ৭ শতাংশে।

- Advertisement -

Read More

Recent