বুধবার - এপ্রিল ১৭ - ২০২৪

ইহুদি মালিকানাধীন রেস্তোঁরায় আগুন দেওয়ার নিন্দা টরন্টো মেয়রের

ইহুদি মালিকানাধীন নর্থ ইয়র্ক ডেলিতে আগুন দেওয়ার নিন্দা জানিয়েছেন টরন্টোর মেয়র অলিভিয়া চাউ

ইহুদি মালিকানাধীন নর্থ ইয়র্ক ডেলিতে আগুন দেওয়ার নিন্দা জানিয়েছেন টরন্টোর মেয়র অলিভিয়া চাউ। সেই সঙ্গে শান্তি বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। দেশজুড়ে সম্প্রতি ইহুদিবিদ্বেষের যে একাধিক ঘটনা ঘটেছে এটাকে তার চূড়ান্ত পর্যায় বলে বর্ণনা করেছে পুলিশ।

বিদ্বেষপ্রসূত এই ঘটনার ব্যাপারে চাউ বলেন, আমি জানি লোকজনের অনভূতি এই সময়ে খুবই তীব্র। কিন্তু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, ইহুদিদের দোকানকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করা গ্রহণযোগ্য নয়। একটা বার্তা খুবই খোলাখুলি বলে দেওয়া দরকার এবং তা হলো বিক্ষোভ করা আপনার সাংবিধানিক অধিকার। কিন্তু বিদ্বেষ, উস্কানি এবং ধর্ম, বর্ণ, জাতি, কোথা থেকে তারা এসেছে ও গায়ের রঙের কারণে লোকজনকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করা টরন্টোতে হতে পারে না।

- Advertisement -

অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে এমার্জেন্সি ক্রুরা ৩ ডিসেম্বর সকালে স্টিলস অ্যাভিনিউ এবং কিলি স্ট্রিটের কাছে ইন্টারন্যাশনাল ডেলিক্যাটেসেন ফুডসে (আইডিএফ) যান। এরপর তারা আগুন নেভান এবং এতে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ভবনের বাইরে রঙ দিয়ে ‘ফ্রি প্যালেস্টাইন’ লেখা ছিল।

ঘটনাস্থল থেকে স্টাফ সুপারিন্টেন্ডেন্ট পাউলিন গ্রে সাংবাদিকদের বলেন, এটা বাস সেন্টারে কোনো গ্রাফিতি নয়। এটা সংবিধান সুরক্ষিত আইনসিদ্ধ কোনো বিক্ষোভও নয়। এটা অপরাধমূলক কর্মকান্ড। এটা সংঘবদ্ধ কাজ।

আগুন দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন টরন্টো পলিশপ্রধান মাইরন ডেমকিউ। এ ঘটনায় সংস্থার হেইট ক্রাইম ইউনিটের তদন্তে কোনো ঘাটতি রাখা হবে না বলে জানান তিনি। ডেমকিউ বলেন, কোনো ভুল করবেন না। এটা ফৌজদারি অপরাধ, যেটা সংঘবদ্ধ এবং কমিউনিটির বড় ধরনের ক্ষতির কারণ। আমার মতে এটা বিদ্বেষপ্রসূত কর্মকান্ড।

টরন্টো পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে টরন্টোতে ১০০ এর মতো হেইট ক্রাইমের ঘটনা ঘটেছে। ৭ অক্টোবরের হামাসের অতর্কিত হামলার পর এই যুদ্ধ শুরু হয়েছে। ওই হামলায় নিহত হন এক হাজার ২০০ এর মতো ইসরায়েলি।

৯৮টি ঘটনার মধ্যে ৫৬টি ইহুদিবেদ্বষপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে পুলিশ। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় সংখ্যাটি ১৮টি বেশি। এদিকে গত তিন মাস ধরে টরন্টোতে ফিলিস্তিনপন্থী বিক্ষোভও অব্যাহত রয়েছে। ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত ২২ হাজার ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছেন।

- Advertisement -

Read More

Recent