বৃহস্পতিবার - এপ্রিল ১৮ - ২০২৪

ফিরে আসছে হাম

ফিরে আসছে হাম

ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রে হামের ফিরে আসার ব্যাপারে সতর্ক করেছে বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এবং ইউএস সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি)। এখন প্রশ্ন হলো কানাডার কি উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ আছে?

জানুয়ারিতে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে সম্ভাব্য সংক্রমণের পরিপ্রেক্ষিতে উইন্ডসর-এসেক্স হেলথ ইউনিট সতর্কতা জারি করে। এর ভিত্তিতে ডা. আইজ্যাক বোগোশ বলেন, আমাদের অবশ্যই প্রস্তুত থাকতে হবে।

- Advertisement -

সংক্রামক রোগ বিষয়ক এই বিশেষজ্ঞ বলেন, এটা এমন এক সংক্রমণ যেখানে খুবই উচ্চ হারে ভ্যাকসিনেশনের ব্যাপারে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। কারণ, হাম নিয়ে কাজ করার সুযোগ খুব বেশি থাকে না। এটা খুবই সংক্রামক। আপনার ভ্যাকসিনেশনের হার যদি কিছুটা কম হয়ে থাকে তাহলে সংক্রমণের বিস্ফোরণ দেখতে পাবেন।

হামের বিরুদ্ধে কানাডার অধিকাংশ অঞ্চলে ভ্যাকসিনেশনের হার ৯০ শতাংশের বেশি। তারপরও রোগটির বিরুদ্ধে কানাডার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দুর্বল। একে শক্তিশালী করতে হবে বলে জানান বোগোশ। তিনি বলেন, একটা উদ্বেগের কারণ হচ্ছে সাম্প্রতিক অতীতে ভ্যাকসিনেশনের হার কমে যাওয়া। গত কয়েক বছরে আমরা অনেক মেরুকরণ দেখেছি। অনেক ভূয়া তথ্য ছড়াতে দেখেছি। সত্যি সত্যিই আমাদের জনস্বাস্থ্যের প্রতি জন আস্থা ফেরাতে হবে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক বিষয় হলো আমরা এমন এক যুগে বাস করছে যখন আরও বেশি সংখ্যক মানুষ ভ্যাকসিন গ্রহণ থেকে নিজেদের ও সন্তানদের বিরত রাখছে। এটা বিরাট সমস্যা। এটা যদি চলতে থাকে তাহলে ভ্যাকসিনে প্রতিরোধযোগ্য অসুস্থ্যতা ছড়িয়ে পড়তে দেখব আমরা।

উদ্বোগের আরেকটি কারণ হচ্ছে ১৯৯৬ সালের আগে যারা ভ্যাকসিন নিয়েছেন তারা পুরোপুরি সুরক্ষিত নাও থাকতে পারেন। বোগোশ বলেন, এটা মনে রাখা জরুরি যে, ১৯৯৬ সালে হামের দ্বিতীয় ডোহ ভ্যাকসিন যোগ করা হয়েছিল। লোকজন যাতে উভয় ডোজই নেয় সেজন্য ব্যাপক প্রচারণাও চালানো হয়। কিন্তু এখনো কিছু লোক আছে যারা হামের ভ্যাকসিনের একটিমাত্র ডোজই নিয়েছেন। তারা নিজেদেরকে পুরোপুরি সুরক্ষিত মনে করতে পারেন। কিন্তু আসলে নয় এবং তাদের কেউ কেউ হামে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে।

- Advertisement -

Read More

Recent