বৃহস্পতিবার - এপ্রিল ১৮ - ২০২৪

পেনশন রেকর্ড উধাও

পেনশন রেকর্ড উধাও

মিসিসোগার বাসিন্দা ইহোর ওয়েরইয়াহ পেনশন সংগ্রহ করতে গেলে তাকে বলা হয়েছে যে, তার ২০ বছরের পেনশন রেকর্ড উধাও। এর ফলে বড় ধরনের খারাপ কিছুর ভয়ে রয়েছেন অন্টারিওর ওই বাসিন্দা।

তিনি বলেন, আমি আতঙ্কিত। কেউ যদি আপনাকে বলে যে, তোমার কোনো অস্তিত্ব নেই তাহলে সেটা তো ভয়েরই।

- Advertisement -

ওয়েরইয়াহ ২০ বছর ধরে একটি কোম্পানিতে কাজ করেন এবং সেখানে পেনশন প্ল্যান সুবিধা ছিল। বয়স ৪৫ বছর হওয়ার পর ওয়েরইয়াহ চাকরি পরিবর্তন করেন। কোম্পানির পেনশন বিভাগে গিয়ে বলেন, বয়স ৬৫ হওয়ার পরই কেবল তিনি তার পেনশন উত্তোলন করতে চান।

গত বছর ওয়েরইয়াহ অবসরে যান। তিনি বলেন, হতাশাটা এখনো তাকে তাড়া করে। কারণ, পেনশন উত্তোলন করতে গেলে তাকে বলা হয় যে, এ সংক্রান্ত কোনো রেকর্ড নেই। তারা বলেন, আমাদের রেকর্ডে আপনার নাম নেই। আমাদের বইয়ে আপনাকে পাচ্ছি না।

নিজে নিজেই পেনশন সংগ্রহে ব্যর্থ হয়ে পাঁচ মাস পার করার পর ওয়েরইয়াহ ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস রেগুলেটরি অথরিটি অব অন্টারিওর (এফএসআরএ) দ্বারস্থ হন। পেনশন সুবিধাভোগীদের পক্ষে কাজ করে প্রতিস্থানটি এবং তার অবসরকালীন তহবিল খুঁজে পেতে তাকেও সহায়তা করে।

ওয়েরইয়া বলেন, বিষয়টির সমাধান হওয়া বিরাট স্বস্তির।

এফএসআরএর হিসাব অনুযায়ী, দুই লাখ অন্টারিওবাসীর পেনশন বেনিফিটের খোঁজ নেই এবং তাদের পাওনার পরিমাণ ৩০০ কোটি ডলারের সমান। এর কারণ, কেউ হয়তো চাকরি পরিবর্তন করেছেন, কোম্পানি বন্ধ হয়ে গেছে অথবা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি তার যোগাযোগের তথ্য হালনাগাদ করেননি।

এফএসআরএর ভারপ্রাপ্ত পেনশন এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড্রু ফাং বলেন, আপনি হয়তো ৩০ বছর আগে আপনার বয়স যখন ২০ বছর ছিল তখন হয়তো কোনো চাকরিতে যোগ দিয়েছিলেন। তাতে যে পেনশন সুবিধা ছিল সেটাই হয়তো আপনি ভুলে গিয়েছেন। সে কারণে এমনটা হতে পারে।

১৫ ফেব্রুয়ারি ছিল পেনশন সচেতনতা দিবস। এফএসআরএ বলছে, কখন আপনি অবসরে যাবেন তা নিয়ে পরিকল্পনা করার এখনই সময়।

This article was written by Rezaul Haque as part of the LJI

- Advertisement -

Read More

Recent