বৃহস্পতিবার - এপ্রিল ১৮ - ২০২৪

কেউ মনে রাখে না, নায়লা বিস্মৃত এক নাম

২০০৭ থেকে তিনি নিয়মিত একুশে টেলিভিশনের বিভিন্ন অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছেন আমার প্রযোজনায় সরাসরি সম্প্রচারিত একুশের সকাল একুশের দুপুর অনুষ্ঠান দীর্ঘদিন উপস্থাপনা করেছেন

নিরবেই চলে গেল নায়লার অকাল প্রয়াণের নয়বছর । কেউ মনে রাখেনি নায়লা নামে আমাদের মিডিয়ার একজন অভিনেত্রী ছিলেন । কি নিস্টুর আমরা মাত্র ক’বছরেই ভুলতে সময় নেইনি । অথচ বেঁচে থাকতে মিডিয়ার এখানে সেখানে তার কত হাঁক ডাক ছিল !

মঞ্চ দিয়ে তার মিডিয়ায় যাত্রা শুরু হয়েছিলো। এরপর বিটিভি, একুশে টিভি, বাংলাভিশন, এশিয়ান টিভি সহ অন্যান্য চ্যানেলের বেশ কিছু জনপ্রিয় অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছেন। কয়েকটি নাটক-টেলিছবিতেও সুনামের সাথেই অভিনয় করেছেন। মঞ্চে লোক নাট্যদলের (বনানী) সদস্য ছিলেন নায়লা। কিন্তু মুনমুন মহসীন নায়লা নামের সেই হাসি খুশী ,প্রানবন্ত মেয়েটির জীবন হঠাৎ থমকে যায় নয় বছর আগে, ২০১৫ সালের ২০ মার্চ ।

- Advertisement -

তার মৃত্যু নিয়ে রয়েছে বিভ্রান্তি। শোনা যায়, তিনি আত্মহত্যা করেছিলেন। তবে কেউ কেউ বলেছিলেন, হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছিল !

নায়লার মৃত্যুর ‘দুই সপ্তাহ আগে তার মা মারা যান। মায়ের মৃত্যুর পর নায়লা মানসিকভাবে এতোটাই ভেঙ্গে পড়েছিলেন যে, তার ফেসবুক স্ট্যাটাসগুলোতে আত্মহত্যার ইঙ্গিত পাওয়া যেতো।

‘ললিতা’, ‘পা রেখেছি যৌবনে’, ‘অ-এর গল্প’ ও ‘মুম্বাসা’সহ একাধিক ধারাবাহিকে কাজ করেছিলেন নায়লা। বিটিভির ‘ভ্রান্তিবিলাস-কালের অপেরা’ অনুষ্ঠানটি ছিল তার সর্বশেষ উপস্থাপনা।

২০০৭ থেকে তিনি নিয়মিত একুশে টেলিভিশনের বিভিন্ন অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছেন । আমার প্রযোজনায় সরাসরি সম্প্রচারিত একুশের সকাল, একুশের দুপুর অনুষ্ঠান দীর্ঘদিন উপস্থাপনা করেছেন । উপস্থাপনা করেছেন একুশে টিভির জনপ্রিয় গেইম শো ‘ভবঘুরে ডটকম ‘।

এ নিস্টুর পৃথিবীতে সবাই ভুলতে সময় নেয় না । তারপরও কেউ কেউ সহকর্মীদের মনেও রাখে ! যেখানে থাকুন শান্তিতে থাকুন নায়লা ।

২১.০৩.২০২৪
মন্ট্রিয়েল

- Advertisement -

Read More

Recent