শুক্রবার - মে ২৪ - ২০২৪

মাদক সংক্রান্ত নতুন নীতি বাস্তবায়নের আহ্বান

মাদক সংক্রান্ত নতুন নীতি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য প্রদেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন অন্টারিও জনস্বাস্থ্য বিভাগের চিফ মেডিকেল অফিসার ডা কিয়েরান মুর

মাদক সংক্রান্ত নতুন নীতি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য প্রদেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন অন্টারিও জনস্বাস্থ্য বিভাগের চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. কিয়েরান মুর। এই নীতির মধ্যে রয়েছে অ্যালকোহল, ভেপ ও ক্যানাবিসের ব্যবহার নিয়ন্ত্রিত করা। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে একাধিক মাদক গ্রহণের কারণে লোকজনের হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যু বেড়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এই আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

একই সঙ্গে ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য অনিয়ন্ত্রিত মাদক রাখাকে অপরাধ হিসেবে ঘোষণা না করার পাশাপাশি ও সরবরাহ নিরাপদ করারও সুপারিশ করেছেন, যাতে করে প্রতি বছর প্রদেশে প্রতিরোধযোগ্য ওপিয়ড ওভারডোজে মৃত্যু কমিয়ে আনা যায়।

- Advertisement -

এ সপ্তাহে প্রকাশিত বার্ষিক প্রতিবেদনে প্রদেশের চিফ মেডিকেল অফিসার লিখেছেন, অনেক বেশি তরুণের ক্ষতি করে, পরিবারকে বিপর্যয়ের মুখে ফেলে দেয়, কমিউনিটিকে বিধ্বস্তকারী মাদকের ব্যবহার সংক্রান্ত প্রতিরোধযোগ্য হুমকি দেখলেই আমাদের অবশ্যই সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে হবে। অন্টারিওতে ধারাবাহিকভাবে বাড়তে থাকা আয়ুষ্কালের ওপর সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সবচেয়ে বড় হুমকি হিসেবে দেখা দিয়েছে কোভিড-১৯ মহামারি এবং মাদক ব্যবহার সংক্রান্ত প্রতিরোধযোগ্য মৃত্যু।

মুরের গবেষণায় বলা হয়েছে, তার বহুমুখী এই সুপারিশ ভয়াবহ ওভারডোজ প্রতিরোধে কর্মকর্তাদের সহায়ক হতে পারে। সেই সঙ্গে লোকজন বিশেষ করে তরুণদের একাধিক বৈধ মাদক সেবন বন্ধ করতে পারে।

অন্টারিও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর মুখপাত্র হান্নাহ জেনসেন এক ইমেইলে বলেন, প্রতিবেদনে তুলে ধরা মুরের সুনির্দিষ্ট দৃষ্টিভঙ্গিকে সরকার স্বাগত জানাচ্ছে। কিন্তু শক্তিশালী মাদক রাখাকে অপরাধ ঘোষণা না করা এবং বৈধ মাদককে নিয়ন্ত্রণ করার সুপারিশ করার মধ্যে অসাঞ্জস্যতা রয়েছে।

মুর বলেন, বিষাক্ত মাদক সরবরাহের কারণে গত কয়েক বছরে অন্টারিওতে প্রতি বছর আড়াই হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে। সেই সঙ্গে ২০১৪ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত অন্টারিওতে কিশোর ও তরুণদের মধ্যে ওপিয়ড-সংক্রান্ত মৃত্যু তিনগুণ হয়েছে।

- Advertisement -

Read More

Recent