শুক্রবার - মে ২৪ - ২০২৪

টরন্টোতে উপস্থিতি বাড়াতে বড় অঙ্কের অর্থ পাচ্ছে সিএসআইএস

টরন্টোতে উপস্থিতি বাড়াতে বড় অঙ্কের অর্থ পাচ্ছে সিএসআইএস

কানাডার গোয়েন্দা সংস্থাকে আগামী আট বছরে বড় অঙ্কের অর্থ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে ফেডারেল সরকার। যেসব কারণে এই অর্থ দেওয়া হবে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে, বৈশি^ক হুমকির মুখে টরন্টোতে গোয়েন্দা সংস্থাটির উপস্থিতি জোরদার।

অর্থমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড ১৬ এপ্রিল বাজেট ঘোষণায় বলেন, শত্রু দেশগুলোর ধারাবাহিক লক্ষ্যবস্তুতে রয়েছে কানাডা। তারা আমাদের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোর পাশাপাশি অভিবাসী কমিউনিটি এবং অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির জন্য হুমকি সৃষ্টি করছে।

- Advertisement -

এ ধরনের হুমকির পাশাপাশি সহিংস চরমপন্থা ও বিদেশি হস্তক্ষেপ মোকাবিলায় গোয়েন্দা সক্ষমতা ও এর উপস্থিতি জোরদারে আগামী আট বছরে ৬৫ কোটি ৫৭ লাখ ডলার ব্যয় করা হবে বলে সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে। সরকার বলছে, উদীয়মান বৈশি^ক হুমকি মোকাবিলায় সিএসআইএসকে সজ্জিত করতে ও প্রযুক্তিগত উন্নয়নের সঙ্গে তাল মেলানোর উপযোগী করতে গোয়েন্দা সক্ষমতা ও অবকাঠামোয় আরও বিনিয়োগের প্রয়োজন। এর ফলে সিএসআইএসকে কানাডিয়ানদের রক্ষায় সক্ষম করে তুলবে।

এই তহবিলের কিছু অংশ সিএসআইএসকে এর গোয়েন্দা সক্ষমতা ও টরন্টোতে তাদের উপস্থিতি বৃদ্ধিতে সক্ষম করে তুলবে বলে বাজেটে বলা হয়েছে।

সিপি২৪এর সঙ্গে আলাপকালে সিএসআইএসের এজেন্ট অ্যান্ড্রু কির্শ বলেন, জিটিএতে সংস্থার উপস্থিতি বৃদ্ধির যুক্তিসঙ্গত কারণ আছে। কারণ, প্রায়ই নগরীটি বিভিন্ন ধরনের হুমকির ক্ষেত্রে থাকছে। বিদেশি হস্তক্ষেপ নিয়ে তদন্তের সময় আমরা দেখেছি যেসব রাইডিং ও এলাকা বিদেশি হস্তক্ষেপের লক্ষ্যবস্তু হিসেবে আছে তারন সবগুলো না হলেও অনেকগুলোর অবস্থান গ্রেটার টরন্টো এরিয়াতে (জিটিএ)। এটা বৃহৎ অঞ্চল। এখানে কর্মকা- চলে এবং সিএসআইয়ের এখানে উপস্থিতি জোরদার করা গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের সামনে আসা ক্রমবর্ধমান ও বদলাতে থাকা হুমকি মোকাবিলার জন্য যে বাড়তি সম্পদ ও সক্ষমতা প্রয়োজন এটা তার স্বীকৃতি হতে পারে।

- Advertisement -

Read More

Recent