শুক্রবার - জুলাই ১৯ - ২০২৪

গার্ডিনারের নির্মাণে গতি আনার দাবি

টরন্টো কাউন্সিলর ব্র্যাড ব্র্যাডফোর্ড বলেন সপ্তাহে ২৪ ঘণ্টাই নির্মাণকাজ করা আমাদের প্রয়োজন

সন্ধ্যা ৬টার কিছু পরে। ফেজ বারভুইয়া তার ক্যানারি ডিস্ট্রিক্টের কাজ শেষে বের হন, যাতে করে রাত ৮টার মধ্যে বাড়িতে পৌঁছাতে পারেন এই আশায়। গাড়িতে উঠতে উঠতে তিনি বলেন, বাড়িতে পৌঁছাতে আমার এক ঘণ্টা বা সোয়া এক ঘণ্টা সময় লাগত। এখন সেটা বেড়ে হয়েছে ১ ঘণ্টা ৪৫ মিনিট বা দুই ঘণ্টা।

এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে ডাফেরিন স্ট্রিট ও স্ট্র্যাচান এভিনিউয়ের মধ্যকার রাস্তার প্রধান লেনে বিধিনিষেধ আরোপ করার পর থেকে এই পরিবর্তন এসেছে। বারভুইয়ার যাতায়াত খারাপ থেকে খারাপতর হয়েছে। উভয় প্রান্তের জটে প্রতিদিন দুই লাখ চালককে ভুগতে হচ্ছে। এমনটাই জানায় গেছে সিটি কর্তৃপক্ষ সূত্রে।

- Advertisement -

বারভুইয়া বলেন, আমার জন্য যেটা বিরক্তিকর তা হচ্ছে, সকালের দিকে আমি যখন আসি এবং লেনটি বন্ধ থাকে তখন কেউ কাজ করে না। সন্ধ্যার দিকেও একই অবস্থা থাকে।

তার প্রশ্ন হচ্ছে, কেন গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কের কাজ ও ট্রাফিক থেকে থাকে। কেন কাজটা ২৪ ঘণ্টা চলে না।

টরন্টো রিজিয়ন বোর্ড অব ট্রেডের প্রেসিডেন্ট জাইলস গারসন বলেন, আমার মনে হয় অতিরিক্ত সময় পর্যন্ত কাজ করার বিষয়টি ভেবে দেখা উচিত। আমি মনে করি এটা জরুরি। অন্য নগরীগুলোতে আমরা এমনটা দেখেছি। এক বছরের প্রকল্প সম্পন্ন করতে তিন বছর লাগছে এমন কথাও লোকজনকে আমি বলতে শুনেছি।

সিটির একজন মুখপাত্র বলেন, প্রকল্প চুক্তিতে ২৪ ঘণ্টা কাজের অনুমতি রয়েছে। কিন্তু প্রাথমিক কর্মঘণ্টা সোমবার থেকে শনিবার সকাল ৭টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত। এ ছাড়া রোববার ঐচ্ছিক ও রাতে কাজের অনুমতি রয়েছে।

এর আগে চেরি স্ট্রিট এবং জার্ভিস স্ট্রিটের মধ্যকার রাস্তার কাজের সময় শব্দ নিয়ে অভিযোগ এই সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে বলে জানান কর্মীরা। সিটি কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে বলেছে, বর্তমানে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান প্রয়োজন মোতাবেক রাতব্যাপী কাজের উদ্যোগ নিয়েছে।

কিন্তু যানবাহনের এর প্রভাব ক্রমেই স্পষ্ট হতে থাকায় নির্মাণ কাজে গতি আনার দাবি জোরালো হচ্ছে। টরন্টো কাউন্সিলর ব্র্যাড ব্র্যাডফোর্ড বলেন, সপ্তাহে ২৪ ঘণ্টাই নির্মাণকাজ করা আমাদের প্রয়োজন। আমি চাই নির্মাণ সরঞ্জাম ২৪ ঘণ্টাই চালু থাকুক। যাতে করে দ্রুত সম্ভব কাজটি আমরা শেষ করতে পারি। এটা তিন বছর টেনে নেওয়ার দরকার নেই। এটা দ্রুত গতিতে শেষ করা প্রয়োজন।

- Advertisement -

Read More

Recent