শুক্রবার - জুলাই ১৯ - ২০২৪

পশ্চিম কানাডায় দাবানলে হাজারো মানুষ ঘরছাড়া

ডুয়ানে লো বাস করেন ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার ফোর্ট নেলসন থেকে মাত্র তিন কিলোমিটার দক্ষিণে

ডুয়ানে লো বাস করেন ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার ফোর্ট নেলসন থেকে মাত্র তিন কিলোমিটার দক্ষিণে। এখানকার ৪ হাজার ৭০০ মানুষের বেশিরভাগই দ্রুত ছড়িয়ে পড়া দাবানলের কারণে ঘর-বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন। কিন্তু লো সে পথে হাঁটেননি।

ডজনখানেক একদল বাসিন্দার সঙ্গে তিনিও থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এসব বাসিন্দার আগুন নেভানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে এবং তারা তাদের বাড়ি সম্পত্তি রক্ষার পরিকল্পনা করছেন।

- Advertisement -

১৩ মে সরকার অবশিষ্ট বাসিন্দাদের যখন সরে যাওয়ার আহ্বান জানাচ্ছিল লো তখন বলেন, আমরা নিরাপদে আছি। ওটা যে এলাকা ছাড়ার নির্দেশ আমরা তা বুঝি। কিন্তু তারা আপনাকে জোর করতে পারে না। তাই আমরা এখানে আছি আমাদের সম্পদ, বাড়ি, গবাদিপশু ও জমি রক্ষা করতে। এ কারণেই আমরা এখানে থেকে গেছি।

দাবানলের মুখেও ফোর্ট নেলসন এলাকার অল্প কিছু বাসিন্দা এলাকা ছাড়ছে নাÑব্রিটিশ কলাম্বিয়ার জরুরি ব্যবস্থাপনামন্ত্রী বাউইন মা এই কথার বলার পর এই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন লো। ১৩ মের মধ্যেই দাবানলের আকার ৫৩ বর্গকিলোমিটার পর্যন্ত বিস্তৃত হয়।

পূর্বাভাসে বলা হয়, ১৩ মে দিনের শেষ ভাগ থেকে ১৪ মে পর্যন্ত পম্চিমা বায়ু দাবানলকে ফোর্ট নেলসনের দিকে ঠেলে নিয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর ফলে যে ঝুঁকি তা নর্দার্ন রকিস রিজিয়নাল মিউনিসিপালিটি এবং ফোর্ট নেলসন ফার্স্ট নেশনকে এলাকা ছাড়ার বাধ্যতামূলক নির্দেশ উত্তরপূর্ব ব্রিটিশ কলাম্বিয়া পর্যন্ত সম্প্রসারণে বাধ্য করেছে।

মা বলেন, ইভাকুয়েশন জোনের বাসিন্দাদের নিজেদের সুরক্ষার প্রয়োজনেই এখনই ওই এলাকা ত্যাগ করা দরকার। দাবানল, বন্যা ও অন্য যেকোনো জরুরি কারণে আপনাকে যখন বাড়ি ছাড়তে বলা হয় তখন আপনার জন্য বাড়ি ছেড়ে যাওয়াটা সত্যিই খুব কঠিন। ছেড়ে যাব নাকি থাকব সেই সিদ্ধান্ত গ্রহণে এ ধরনের পরিস্থিতি লোকজনের ওপর কী ধরনের প্রভাব ফেলে সে ব্যাপারে আমি পুরোপুরি অবগত। আমরা সেইসব মানুষের কথা বলছি যাদের কারো কারো পুরো জীবনটাই এসব বাড়িতে কেটেছে।

- Advertisement -

Read More

Recent