শুক্রবার - জুলাই ১৯ - ২০২৪

বাচনিক-এর গেট টুগেদার

বাচনিকের প্রায় অধিকাংশ সদস্যের উপস্থিতিতে গেট টুগেদার পার্টি জমে উঠেছিল শুভেচ্ছায় গানে হুল্লোড়ে হালকা রসিকতায় নাচে আর অবশ্যই মজার মজার খাবার পরিবেশনায়

২৬মে সন্ধ্যায় বাঙালি অধ্যুষিত ড্যানফোর্থ-এর জনপ্রিয় রেস্তোরাঁ রেড হট তন্দুরির পার্টি রুমে আয়োজন করা হয়েছিল বাচনিকের বাৎসরিক গেট টুগেদার।

বাচনিকের প্রায় অধিকাংশ সদস্যের উপস্থিতিতে গেট টুগেদার পার্টি জমে উঠেছিল শুভেচ্ছায়, গানে, হুল্লোড়ে, হালকা রসিকতায়, নাচে আর অবশ্যই মজার মজার খাবার পরিবেশনায়। আমাদের রাশু আপা শারীরিক অসুস্থতা সত্ত্বেও নাজমা কাজীর সহযোগিতায় গেট টুগেদার আয়োজনে উপস্থিত হয়ে সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন সেদিন। আর কে না জানে কিছু কিছু মানুষের উপস্থিতিই কতটুকু আলোকিত করে দেয় একটি জমায়েতকে! রাশু আপা সেরকমই একজন উজ্জ্বল ব্যক্তিত্ব। তাঁকে পেয়ে আমরা সবাই আরো বেশী করে আনন্দে মেতে ওঠেছিলাম। ধন্যবাদ নাজমা কাজী৷ ভালোবাসা রাশু আপা।

- Advertisement -

আমার জন্য আরো একটি সম্মান ও আনন্দময় সময় ছিল কবি কাজী হেলাল, আমরা যাকে ওয়ালী ভাই বলে ডাকি, তাঁর হাত থেকে সদ্যপ্রকাশিত কাব্যগ্রন্থটি উপহার পাওয়া। ওয়ালী ভাই নিজেই যেন একটি নিটোল কবিতা। পরিশীলিত, হৃদয়বান, স্নিগ্ধ ব্যক্তিত্বের ওয়ালী ভাইয়ের ব্যবহারে ও হাসিতে এমন এক মোলায়েম আদর ফুটে উঠে যে, এক ধরনের মায়াময় পরিবেশ সৃষ্টি হয় সেখানে। আমাদের চারপাশের অস্থির ও অস্থিতিশীল জীবনে এরকম মানুষ সত্যিই কদাচিৎ চোখে পড়ে। ওয়ালী ভাইয়ের জন্য আমার অনেক শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা। নিশ্চয়ই ওয়ালী ভাইয়ের কাব্যগ্রন্থটি মনোযোগ সহকারে পাঠ করে আমার অনুভূতি প্রকাশ করবো শীঘ্রই।

বাচনিক পরিবারে যুক্ত হয়েছেন আরো দুই বন্ধু : তানিয়া নূর ও ইমরান হোসেন সুমন। তাদেরকে স্বাগত জানাই। মেরী রাশেদীন আরো একটি আনন্দ সংবাদ দিয়েছেন সেদিন সন্ধ্যায়। এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানাবো পরবর্তীতে।

ছোট্ট বন্ধু জয়ী করিম, সাইয়ারা নূর আরায়া, অনুরাগ আহমেদ ও সম্পূর্ণা সাহা আমাদেরকে সাহস যুগিয়ে পাশে আছেন, এইতো আমাদের আনন্দ ও ভরসা। একজন সম্পূর্ণা সাহা যখন তার অনুভূতি ব্যক্ত করতে বলে- আমরা সংগঠনের চেয়ে কাজের উদ্দীপনায় বড় হতে চাই! তখন বুক ভরে ওঠে আশায়। চোখের জল লুকিয়ে ভাবতে ভালো লাগে, আমার মাতৃভাষা, মাতৃভূমি ও মায়ের ঋণ এরাই স্বীকার করবে, আমাদের না থাকা পৃথিবীতে!

- Advertisement -

Read More

Recent