রবিবার - জুলাই ১৪ - ২০২৪

ওপিয়ডের বাড়তি ডোজে মৃত্যুর সম্ভাবনা বেশি আদিবাসীদের

ওপিয়ডের বাড়তি ডোজের প্রভাবে ২২ অক্টোবর মৃত্যু হয় স্ট্যাসিটি বেইলির। তার আগে একটি মাদক পুনর্বসানে ভর্তির জন্য অনুমোদনের অপেক্ষায় ছিলেন তিনি। তার বাবা গ্যারি বেইলি বলেন, স্ট্যাসিটি দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ কোনো ওপিয়ড নিচ্ছিলো না। তবে এক দশকেরও বেশি সময় ধরে মদে আসক্ত ছিল ২৭ বছর বয়সী স্ট্যাসিটি। ওপিয়ডের বাড়তি ডোজের কারণে যেসব তরুণ মারা যাচ্ছে তাদের মতোই স্ট্যাসিটির সামনেও বিরাট সম্ভাবনা ছিল।

- Advertisement -

স্ট্যাসিটি ছিলেন হোয়াইটহর্সের কোয়ানলিন ডান ফার্স্ট নেশনের একজন সদস্য। মহামারির মধ্যে কানাডায় ওপিয়ডের বাড়তি ডোজের কারণে আদিবাসীদের মধ্যে যে মৃত্যু বাড়ছে তিনি তার অংশমাত্র। গ্যারি বেইলি বলছিলেন, এই মৃত্যুগুলো নিছক পরিসংখ্যান নয়।

ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার ফার্স্ট নেশন হেলথ অথরিটির উপাত্ত বলছে, আদিবাসীদের মধ্যে ওপিয়ডের বাড়তি ডোজ গ্রহণের ঘটনা পাঁচগুন বেশি। এ কারণে তাদের মধ্যে মৃত্যুর হার সাধারণ নাগরিকদের তিনগুন বেশি। কোভিড-১৯ মহামারি এ ব্যাবধানকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।

অথরিটির ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. নেল উইম্যান বলেন, কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ ওপিয়ডের বাড়তি ডোজ গ্রহণের প্রবণতা বাড়িয়ে দিয়েছে। ২০১৯ সালে বাড়তি ডোজের কারণে মৃত্যু কমে এসেছিল। কিন্তু লকডাউন লোকজনকে নিভৃতবাসে যেতে বাধ্য করেছে এবং অধিক সংখ্যক মানুষ মাদকে আশ্রয় নিয়েছেন।

তিনি বলেন, মানসিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের সক্ষমতা সীমিত। কিছু চিকিৎসাকেন্দ্র বন্ধ হয়ে গেছে। সীমান্তও বন্ধ, যা অবৈধ মাদকের সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে এবং ফেনটানিলের মতো ওপিয়ডের পর্যাপ্ত জোগান তৈরি হয়েছে। কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জনস্বাস্থ্য বিধিবিধানের অনাকাক্সিক্ষত এই পরিণাম ক্ষতিকর ওষুধ সেবন ও মৃত্যুর ঘটনা বাড়িয়ে দিয়েছে। এর আগে এটা এতোটা বিষাক্ত ও মারাত্মক ছিল না।

সাস্কেচুয়ানের প্রাদেশিক উপাত্ত বলছে, গত তিন বছরে ওপিয়ডজনিত যেসব মৃত্যু হয়েছে তাদের অর্ধেকই আদিবাসী। যদিও প্রদেশের মোট জনসংখ্যায় তাদের হিস্যা মাত্র ১৬ দশমিক ৩ শতাংশ।

গত নভেম্বরে প্রকাশিত অন্টারিও ড্রাগ পলিসি রিসার্স নেটওয়ার্কের এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, মহামারির প্রথম বছরে ওপিয়ডের বাড়তি ডোজের কারণে আদিবাসীদের মধ্যে মৃত্যুহার বেড়ে দ্বিগুন হয়েছে। ২০২০ সালের মার্চ থেকে ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত ওপিয়ডের বিষক্রিয়ায় মারা গেছেন ১১৬ জন আদিবাসী। আগের বছরের চেয়ে এ সংখ্যা ১৩২ শতাংশ বেশি। অথচ একই কারণে অন্টারিওর বাকি নাগরিকদের মধ্যে মৃত্যুহার বেড়েছে ৬৮ শতাংশ।

ইউকনে জনপ্রতি ওপিয়ডের বাড়তি ডোজ গ্রহণের হার সমগ্র কানাডার মধ্যে সর্বোচ্চ। এখানে প্রতি এক লাখে ৪৮ দশমিক ৪ জন মারা যান ওপিয়ডের বাড়তি ডোজ গ্রহণের ফলে।

This article was written by Rezaul Haque as part of the Local Journalism Initiative.

- Advertisement -

Read More

Recent