শুক্রবার - জুলাই ১৯ - ২০২৪

ক্রকাসের গল্প

ক্রকাস ফুলের একটা গল্প আছে

কানাডার যা কিছু আমার ভাল লাগে তারমধ্যে ফুল অন্যতম। আমাদের অন্টারিও প্রদেশে শীত শেষে বসন্ত শুরু হয়েছে। আর মাত্র কয়েকদিন পর চারিদিকে থাকবে হাজার ফুলের শোভা।

বসন্ত আসার সাথে সাথে যে ফুলটি মাটিতে জমে থাকা বরফ ঠেলে ফুটে ওঠে, সেটাই ক্রকাস। ঘাসের চেয়ে অল্প বড় ক্রকাস ফুল অপরুপ রঙ ছড়ায়। নীলচে বেগুনি, সাদা আর হলুদ এই তিন রঙের ক্রকাস দেখতে পাওয়া যায়। ক্রকাস ফুলের পরাগ দিয়ে তৈরি হয় সবচেয়ে দামী রঙ জাফরান।

- Advertisement -

ক্রকাস ফুলের একটা গল্প আছে। গ্রীক মিথোলজির পরী স্মাইলেক্সের সাথে মর্তের মানব ক্রকাসের প্রেম হয়। কিন্তু পরী স্মাইলেক্স ক্রকাসকে কখনো সুখী করতে পারেনি। এদিকে ক্রকাস ছিল গ্রীক দেবতা হারমিসের বন্ধু। চাকতি নিক্ষেপ খেলার সময় ক্রকাস হঠাৎ দাঁড়িয়ে গেলে হারমিসের নিক্ষেপ করা চাকতির আঘাতে সে মৃত্যু বরণ করে। অপরাধবোধে বিমর্ষ হয়ে পরে হারমিস। অনুশোচনায় দগ্ধ হয় পরী স্মাইলেক্স। হারমিস আর স্মাইলেক্সের অনুরোধে দেবতা জিউস ক্রকাসকে ফুলে পরিনত করে দেন।

(বি: দ্র: — হুমায়ুন আজাদ লিখেছিলেন
‘কি অদ্ভুত সময়ে বাস করি।
যাকিছু আমি ভালবাসি, তাদের কথাও আমি বলতে পারিনা।”

নিজেকে কিছুটা হুমায়ুন আজাদ মনে হচ্ছে। বিভিন্ন ভাললাগার ইস্যু নিয়ে তর্ক করতে ভালো লাগছে না। রোজা সংযমের মাস। তর্ক করা আরো ঠিক না। তাই ফুলের পোস্ট দিলাম।

ছবি প্রথম দুইটা নেট থেকে নিয়েছি, পরের দুইটা বিন্দুর পোস্ট থেকে নিয়েছি। থ্যাংকস বিন্দু । আর শেষের তিনটা আমার তোলা।

স্কারবোরো, কানাডা

- Advertisement -

Read More

Recent