বুধবার - ফেব্রুয়ারি ২১ - ২০২৪

কর্মসংস্থান হয়েছে মানুষের

ডেসজার্ডিনসের প্রধান অর্থনীতিবিদ জিমি জিন

কানাডিয়ান অর্থনীতি অক্টোবরে ১০৮,০০০ চাকরি যোগ করেছে, যা সাম্প্রতিক মাসগুলোতে পরিলক্ষিত ক্ষতির বিপরীতে অনেকটাই সাহায্য করেছে এবং আশ্চর্যজনকভাবে যারা কর্মসংস্থানে একটা বড় ধ্বসের আশঙ্কা করেছিলেন, তারাও স্বস্তি পেয়েছেন।

সর্বশেষ শ্রমশক্তি সমীক্ষানুযায়ী পরিসংখ্যান কানাডা শুক্রবার বলেছে যে গত মাসে বেকারত্বের হার ৫.২ শতাংশে স্থিতিশীল ছিল কারণ কানাডিয়ানরা কাজের সন্ধান করছে।

- Advertisement -

চাকরি হারানোর চার মাস পরে নতুন চাকরির খোঁজ আসে যা কর্মসংস্থানে সামান্য হলেও সাহায্য করছে।

সুদের হার বৃদ্ধির সাথে সাথে কানাডিয়ান অর্থনীতি সম্ভাব্য মন্দার দিকে যাচ্ছে বলে যে আশঙ্কা করা হয়েছিলো, তার সাথেও এটি বিরোধপূর্ণ।

উৎপাদন, নির্মাণ, বাসস্থান এবং খাদ্য পরিষেবাগুলির নেতৃত্বে অক্টোবরে কর্মসংস্থান বিস্তৃত পরিসরে বেড়েছে।

গ্রীষ্মে তিন মাস চাকরি হারানোর পরে এবং সেপ্টেম্বরে কর্মসংস্থান সংক্রান্ত ঝামেলার পরে অক্টোবরে কানাডিয়ানরা অবশেষে কর্মসংস্থানের মুখ দেখতে পেরেছেন।

ডেসজার্ডিনসের প্রধান অর্থনীতিবিদ জিমি জিন বলেন, যদিও প্রতিবেদনটি প্রত্যাশাকে অনেকটাই ছাড়িয়ে গিয়েছে, তবুও ক্রমবর্ধমান সুদের হারের বিপরীতে অর্থনীতি যথেষ্ট শান্ত হবে বলেও আশা করা হচ্ছে।

কয়েক দশকের উচ্চ মূল্যস্ফীতির প্রতিক্রিয়ায় ব্যাংক অফ কানাডা এই বছর আক্রমনাত্মকভাবে সুদের হার বাড়িয়েছে এবং আরও হার বাড়ানোর পরিকল্পনার ইঙ্গিত দিয়েছে।

সর্বশেষ চাকরির প্রতিবেদনে আরও দেখা গেছে যে টানা পঞ্চম মাসে, বার্ষিক ভিত্তিতে মজুরি বৃদ্ধি পেয়েছে। এক বছর আগের তুলনায় অক্টোবরে মজুরি বেড়েছে ৫.৬ শতাংশ। সেপ্টেম্বরে বার্ষিক মুদ্রাস্ফীতির হার ৬.৯ শতাংশে এসেছে, যার ফলে অনেক কানাডিয়ান গত বছরের তুলনায় ক্রয়ক্ষমতা হারিয়েছে।

অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিস্টিকস (ONS) অনুসারে, ১৫ বছর বা তার বেশি বয়সী কানাডিয়ান অভিবাসীদের মধ্যে কর্মসংস্থানের হার অক্টোবরে রেকর্ড ৬২.২ শতাংশে পৌঁছেছে। প্রতিবেদনে আরও দেখা যায় যে প্রতি ঘন্টায় ৪০ ডলারের বেশি উপার্জনকারী শ্রমিকদের তাদের মজুরি বৃদ্ধির সম্ভাবনা বেশি ছিল।

ব্যাঙ্ক অব কানাডার সর্বশষ ব্যয়ের স্ন্যাপশট রিপোর্ট অনুসারে, কানাডিয়ানদের এক তৃতীয়াংশেরও বেশি জানিয়েছে যে তারা তাদের আর্থিক চাহিদা পূরণ করা কঠিন বা খুব কঠিন বলে মনে করছে।

আবাসন এবং খাদ্য পরিষেবা, খুচরা বাণিজ্য এবং পরিবহন এবং গুদামজাতের কর্মীরা আর্থিক চ্যালেঞ্জে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে।

- Advertisement -

Read More

Recent