বুধবার - মে ২২ - ২০২৪

বার্ড ফ্লুর নজিরবিহীন প্রাদুর্ভাব

বিশ্বব্যাপী কোটি কোটি পাখি এতে সংক্রমিত হয়েছে শুধু কানাডাতেই আক্রান্ত হয়েছে ৭২ লাখ পাখি

বৈশি^কভাবে এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জার নজিরবিহীন প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। তবে এটা মানুষের মধ্যে সংক্রমণের ঝুঁকি এখনো বেশ কম বলে জানিয়েছে কানাডিয়ান ফুড ইন্সপেকশন এজেন্সি (সিএফআইএ) এবং হেলথ কানাডা।

সিএআইএ জানিয়েছে, বিশ^ব্যাপী কোটি কোটি পাখি এতে সংক্রমিত হয়েছে। শুধু কানাডাতেই আক্রান্ত হয়েছে ৭২ লাখ পাখি। যুক্তরাষ্ট্র ও বিশে^র অন্যান্য দেশেও এর সংক্রমণ দেখা যাচ্ছে।

- Advertisement -

বার্ড ফ্লু নামে পরিচিত এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা সাধারণত পোষা ও বন্য উভয় শ্রেণির পাখির মধ্যেই ছড়ায়। অনেক সময় ভাইরাসটি পাখি থেকে মানুষের দেহেও সংক্রমিত হয়ে থাকে। এমনটা ঘটেছিল কম্বোডিয়ায়, যেখানে সংরক্ষণ এলাকার কাছঠাকাছি বসবাসকারী ১১ বছরের একটি মেয়ে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছিল।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, ২০১৪ সালের পর হিউম্যান এইচ৫এন১ এ আক্রান্ত হয়ে মেয়েটির মারা যাওয়ার এটাই প্রথম ঘটনা। মেয়েটির বাবাও ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে তার মধ্যে বড় কোনো উসর্গ দেখঅ যায়নি।

ভাইরাসটি যে মানুষ থেকে মানুষে সহজেই ছড়াতে পারে এই ঘটনা সেই উদ্বেগ বাড়িয়ে দিয়েছে। এর ফলে স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থাও আসতে পারে। যদিও হেলথ কানাডা এক ইমেইলে গ্লোবাল নিউজকে বলেছে, এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জায় মানুষের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা খুবই বিরল এবং আক্রান্ত প্রাণীর কাছাকাছি খুব বেশি থাকেন এমন ব্যক্তিদের সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি খুবই কম।

১৯৯৭ সাল থেকে এ পর্যন্ত বিশ^ব্যাপী ৮০০ এর বেশি মানুষের এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এর বেশিরভাগই ঘটেছে আফ্রিকা এবং এশিয়ায়। হেলথ কানাডা বলেছে, আক্রান্তদের অর্ধেকের অবস্থা ছিল গুরুতর। কানাডায় মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত বার্ড ফ্লুর একমাত্র ঘটনাটি ঘটে ২০১৪ সালে। চীন থেকে ফেরার পর ওই ব্যক্তি সংক্রমিত হন। ধারণা করা হয় যে, ওই ব্যক্তি সেখানেই সংক্রমিদ হয়েছিলেন।

অভিযান ইনফ্লুয়েঞ্জার উপসর্গও জ¦র, কাশি, হাম ও গলা ব্যথার মতো অন্যান্য সাধারণ অসুস্থতার মতোই। হেলথ কানাডা বলছে, বর্তমানে পাখিদের মধ্যে এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জার যে ধরনটি সবচেয়ে বেশি ছড়াচ্ছে সেটি আগের ধরনের চেয়ে আলাদা। এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা প্রতিনিয়ত ধরন পাল্টায়।

সিএফআইএর তথ্য অনুযায়ী, কানাডায় এখন পর্যন্ত বাণিজ্যিক ও অবাণিজ্যিক ২৯৯টি খামারে ফার্মে বার্ড ফ্লু শনাক্ত হয়েছে। এতে আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৭২ লাখ পাখি। কানাডায় মুরগি ও ডিম উৎপাদনকারী প্রায় ৫ হাজার বাণিজ্যিক খামার রয়েছে। ২০২২ সালে কানাডার মুরগি ও ডিম উৎপাদকরা ৭৯ কোটির বেশি মুরগি ও ৮০ কোটি ৩০ লাখ ডিম উৎপাদন করেছে।

This article was written by Rezaul Haque as part of the LJI

- Advertisement -

Read More

Recent