শনিবার - এপ্রিল ২০ - ২০২৪

কানাডার গণতন্ত্র

আমরা যারা সব সময় গনতন্ত্রের কথা বলি ,যারা নিজেকে গনতন্ত্রী বলে দাবী করি তাদের মধ্যে বেশ কিছু সমস্যা আছে। তবে অনেকগুলি সমস্যার মধ্যে আজ শুধুমাত্র একটি সমস্যা নিয়ে আলোচনা করবো।

- Advertisement -

আমরা যারা ফাস্ট জেনারেশন বাংলাদেশ থেকে কানাডায় এসেছি একটা বিষয়ে অধিকাংশের মাইন্ডসেট প্রায় একই রকম।

আর সেই একটি বিষয় হচ্ছে, আমরা যে দলের সমর্থন করি সে  দলের কর্মকান্ডের, গৃহীত নীতির কোন সমালোচনা করি না এবং সমালোচনা নিতেও পারি না।

সেটি বাংলাদেশেও যেমন, এই কানাডাতেও আমরা অধিকাংশ একই রকম মানসিকতা লালন করি।

যিনি আওয়ামী লীগকে সমর্থন করেন তিনি আওয়ামী লীগের কোন কিছুর সমালোচনা করতে পারেন না এবং আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কোন সমালোচনা তিনি নিতেও পারেন না।

ঠিক একইভাবে, যিনি বিএনপিকে সমর্থন  করেন তিনি বিএনপির কোন কিছুর সমালোচনা করতে পারেন না এবং বিএনপির বিরুদ্ধে কোন সমালোচনা তিনি নিতেও পারেন না।

এই কানাডাতে আসার পরও এখানে আমাদের  মাইন্ডসেট অনেকটা বাংলাদেশের মতোই।

আমরা যারা লিবারেল করি তারা লিবারেলের কোন কিছুর সমালোচনা করি না এবং লিবারেলের বিরুদ্ধে কোন সমালোচনাকে নিতেও পারি না।

ঠিক একইরকম ভাবে, আমরা যারা কনজারভেটিভ করি তারা কনজারভেটিভ পার্টির কোন কিছুর সমালোচনা করি না এবং কনজারভেটিভ পার্টির বিরুদ্ধে কোন সমালোচনাকে নিতেও পারি না।

এর ব্যতিক্রম অবশ্যই আছে কিন্তু তা খুবই  নগন্য। আমরা অধিকাংশই উপরে উল্লেখিত মানসিকতাই লালন করি। এই বক্সের বাইরে আসার চেষ্টা বা ইচ্ছা কোনটাই আমাদের মধ্যে নেই। অথচ আমরা নিজেদেরকে গনতন্ত্রী ভাবি।

কথা হচ্ছে, গনতন্ত্র কি শুধু প্রতিপক্ষের সমালোচনা করা?  শুধুমাত্র প্রতিপক্ষের দোষ ত্রুটি নিয়ে সোচ্চার হওয়া ?

গনতন্ত্র মানে কি নিজের পক্ষের দলের সমালোচনা না করা?  নিজ দলের দোষ ত্রুটির বেলায় নি:শ্চুপ থাকা?  কিংবা নিজের দলের অন্য কেউ সমালোচনা  করলে তা মানতে না পারা?

এই যদি হয় অবস্থা তাহলে কি আমরা নিজেদেরকে গনতন্ত্রী বলে ভাবতে পারি?

ফেডারেল গর্ভামেন্ট  বাজেট ঘোষণা করেছে।

আমরা জানি এখন দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে আমরা হিমসিম খাচ্ছি। আয়ের সংগে ব্যয়ের বিরাট অসংগতি হয়ে যাচ্ছে। অনেকেই এই ব্যয় মিটাতে গিয়ে বাড়তি আয়ের জন্য একাধিক জব করতে হচ্ছে। অনেককে নিজের স্যাটেল্ড জবের পাশাপাশি odd  জব  করতে হচ্ছে। অনেকের মর্টগেজের প্রিমিয়াম ৬০০ থেকে ৭০০ ডলার বৃদ্ধি পেয়েছে। দুর্বিষহ জীবনের  মাত্র দু একটি উদাহরণ দিলাম। আরো হয়ত দেওয়া সম্ভব।

এই বাজেট কি আমাদের এই সব সমস্যা দুর করবে?

আমরা যারা লিবারেল করি কয়জনই বা এই সব নিয়ে কথা বলেছি, সমালোচনা করেছি কিংবা অন্যে সমালোচনা করলে তাতে একমত পোষন করতে পেরেছি?

অনেকে নিজ দলের সমালোচনা করতে ভয় পান। পাছে পিঠে যদি কেউ সীল মেরে দেয়। কেউ যদি বলে বসে, তুমি নিজ দলের সমালোচনা করো, তুমি তো ফেইক লিবারেল কিংবা ফেইক কনজারভেটিভ?

এমন যারা পাছে লোকে কি বলবে, কিংবা পিঠে সীল নেওয়ার ভয়ে ভীত হয়ে নিজ দলের মন্দ কিছুর সমালোচনা থেকে নিজেকে গুটিয়ে রাখে তারা আসলে ভীতু গনতন্ত্রী।  সাহসী গনতন্ত্রী হতে বুকের পাটা লাগে।

স্কারবোরো, কানাডা

- Advertisement -

Read More

Recent