রবিবার - জুন ১৬ - ২০২৪

আবাসন নিয়ে কম কথা কেন?

বাড়ির সরবরাহ বৃদ্ধি ও বাড়িকে সাশ্রয়ী করতে তাদের পরিকল্পনার দিকে কানাডার দলীয় নেতাদের আরও বেশি মনোযোগ দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন কৌশলীরা। তা না হলে তারা সম্ভাব্য ভোটারদের বড় অংশের সমর্থন হারাতে পারেন।

- Advertisement -

সিটিভির কোয়েশ্চন পিরিয়ডের রাজনৈতিক কৌশলীদের সাপ্তাহিক প্যানেলের মতে, আবাসন পরিকল্পনায় মনোযোগ না দেওয়ার মধ্য দিয়ে দলীয় নেতারা ভোটারদের বড় অংশের সমর্থন হারাতে পারেন। ভোটারদের বড় অংশ হচ্ছেন তারা যারা এই ভেবে হতাশ যে, কখনোই তারা বোধ হয় বাড়ির মালিক হতে পারবেন না।

অন্টারিও প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ডের ক্যাম্পেইন ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেছিলেন কোরি টেনেকি। সাবেক প্রধানমন্ত্রী স্টিফেন হারপারের কমিউনিকেশন ডিরেক্টরের দায়িত্বও পালন করেন তিনি। টেনেকি বলেন, আমি মনে করি এই মুহূর্তে ভোটারদের সবচেয়ে বড় অংশটি হচ্ছে মিলেনিয়াল। আবাসন হচ্ছে তাদের কাছে প্রধানতম ইস্যু। নতুন কানাডিয়ানদের কাছেও আবাসন রয়েছে সর্বাগ্রে। এই দুই গ্রুপ আবাসন বাজারে গিয়ে পেরে উঠছে না। বাড়ির দাম অনেক বেশি। কারণ, এর সরবাহ খুবই কম।

টেনেকি বলেন, রাজনীতিকদের সামনে প্রধান চ্যালেঞ্জ হলো দ্রুততম সময়ের মধ্যে অধিক সংখ্যক বাড়ি নির্মাণ করা। কিন্তু অনুমোদনের সময় কমিয়ে আনতে বিভিন্ন স্তরের সরকারের কাজ করাটাও আরেকটা চ্যালেঞ্জ।

সাবেক এনডিপি কৌশলী ক্যাথলিন মঙ্ক বলেন, আপনি যদি বাড়ির মালিক হয়ে থাকেন তাহলে আপনি হয়তো ভোট দেবেন। কিন্তু সাম্প্রতিক উপাত্ত বলছে, অন্টারিও এবং ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার মতো আসনগুলোতে ভোটারদে বেশিরভাগই ভাড়াটিয়া; বাড়ির মালিকদের মধ্যে ভোটার কম। এখানে মজার বিষয় হচ্ছে যে দল কেবল বাড়ির মালিকদের সঙ্গে নয় ভাড়াটিয়াদের সঙ্গেও কথা বলবে তাদের দল সম্ভবত বড় ধরনের জোট তৈরি করতে সক্ষম হবে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী পল মার্টিনের চিফ অব স্টাফ টিম মারফি বলেন, এ্টা কিছুটা নির্ভর করছে এই চক্রের কোথঅয় রাজনীতিকরা অভস্থান করছেন তার ওপর। ফেডারেল বাজেটের উদাহরণ এক্ষেত্রে দেওয়া যেতে পারে। এই বাজেটে তাদের জন্য কিছু বিষয় আছে। গত বাজেটেও কিছু ছিল। আবাসন নীতি নির্ভর করছে প্রতিটি সরকার ্কসঙ্গে কতটা কাজ করছে তার ওপর। আমাদের প্রকৃত সমস্যা হচ্ছে সরবরাহ খুবই কম। সেই সঙ্গে আমাদের জনসংখ্যাও বাড়ছে। মধ্যম আয়ের বড় অংশ মনে করছে, বাড়ির মালিক হওয়ার স্বপ্ন তাদের জন্য অবাস্তব। আমার মনে হয় রাজনীতিক ও সরকারের এ নিয়ে কাজ করা উচিত।

- Advertisement -

Read More

Recent