বুধবার - ফেব্রুয়ারি ২১ - ২০২৪

মিনডেনের জরুরি বিভাগ বন্ধের বিরোধিতা

হ্যালিবার্টন হাইল্যান্ডস হেলথ সার্ভিসেস এপ্রিলে এক ঘোষণায় জানায় মিনডেনে এর জরুরি কক্ষ ১ জুন বন্ধ করে দেওয়া হবে এবং সব ধরনের জরুরি সেবা হ্যালিবার্টনে স্থানান্তর করা হবে মিনডেন থেকে যার দূরত্ব প্রায় ২৫ কিলোমিটার

মিনডেনে অন্টারিও কমিউনিটির পরিকল্পিত জরুরি বিভাগ বন্ধ করে দিতে দুই সপ্তাহেরও কম সময় বাকি আছে। এই অবস্থায় সিদ্ধান্তটির বিরোধিতাকারীরা বিষয়টি আদালতে নিয়ে যাওয়ার আশা করছেন।

হ্যালিবার্টন হাইল্যান্ডস হেলথ সার্ভিসেস এপ্রিলে এক ঘোষণায় জানায়, মিনডেনে এর জরুরি কক্ষ ১ জুন বন্ধ করে দেওয়া হবে এবং সব ধরনের জরুরি সেবা হ্যালিবার্টনে স্থানান্তর করা হবে। মিনডেন থেকে যার দূরত্ব প্রায় ২৫ কিলোমিটার।

- Advertisement -

সিদ্ধান্তটি স্থানীয় বাসিন্দাদের ক্ষুব্ধ করেছে এবং সেভ মিনডেন ইআর নামে একটি প্রচারণাও শুরু করেছে তারা। আইনি লড়াইয়ের জন্য শুক্রবার এক লাখ ডলার তহবিল সংগ্রহের ঘোষণা দিয়েছে গ্রুপটি।

প্রচারণার মুখপাত্র প্যাট্রিক পরজুচেক রোববার বিকালে আয়োজিত এক সমাবেশের আগে আগে বলেন, এই আদেশের বিরুদ্ধে আমরা যদি আদেশ না পাই এবং জরুরি বিভাগটি যদি স্থানান্তরিত হয়ে যায় তাহলে আরেকটি জরুরি বিভাগ আমরা পাবো না। হার্ট অ্যাটাক, সিজার, স্ট্রোক, আঘাত ও অসুস্থতার চিকিৎসায় পুরো এলাকাতেই আর কোনো হাসপাতাল থাকবে না। জরুরি সেবার জন্য তাদেরকে কমিউনিটির বাইরে যেতে হবে।

পরজুচেক বলেন, প্রচারণার প্রথম দুই দিনে গ্রুপটি ৫০ হাজার ডলার সংগ্রহ করেছে। জরুরি বিভাগ বন্ধের বিরুদ্ধে কমিউনিটি যে লড়াই করতে চায়, এটা তারাই প্রমাণ। বন্ধের ব্যাপারে জনগণের সঙ্গে পরামর্শ করা হয়নি। জরুরি প্রয়োজনে কমিউনিটি সেবা প্রাপ্তি কার্যত বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। মিনডেন থেকে হ্যালিবার্টনে যেতে ক্যাব ভাড়া লাগে ১১০ ডলার। এ ছাড়া এই অঞ্চলের মধ্যে আমাদের দারিদ্র্যের হার সবচেয়ে বেশি। এখানকার বেশিরভাগ মানুষ সামাজিক ভাতার ওপর নির্ভরশীল এবং ক্যাব ভাড়া করার মতো সামর্থ্য তাদের নেই।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী সিলভিয়া জোন্সের কার্যালয় থেকে ইস্যু করা এক বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে, দুই জরুরি বিভাগ একত্রিকরণের ফলে আরও বেশি সময়মতো সেবা পাওয়া যাবে। এখানে বন্ধের কোনো বিষয় নেই। সিদ্ধান্তটি নিয়েছে হ্যালিবার্টন হাইল্যান্ডস হেলথ সার্ভিসেস পর্ষদ ও এর নেতারা। কারণ, দৈনন্দিন পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে তারাই।

- Advertisement -

Read More

Recent