বৃহস্পতিবার - জুলাই ১৮ - ২০২৪

প্যাশিওর জন্য স্বচ্ছ মানদ- তৈরির আহ্বান

কোভিড ১৯ এর কারণে সামাজিক দূরত্ব ও অন্যান্য বিধিনিষেধের সময় কানাডার অনেক সিটি অস্থায়ী প্যাশিও নীতি চালু করেছিল সেই সঙ্গে অধিক সংখ্যক গ্রাহককে আউটডোরে সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে বার ও রেস্তোরাঁর জন্য ফিও মওকুফ করা হয়েছিল

কোভিড-১৯ এর কারণে সামাজিক দূরত্ব ও অন্যান্য বিধিনিষেধের সময় কানাডার অনেক সিটি অস্থায়ী প্যাশিও নীতি চালু করেছিল। সেই সঙ্গে অধিক সংখ্যক গ্রাহককে আউটডোরে সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে বার ও রেস্তোরাঁর জন্য ফিও মওকুফ করা হয়েছিল। এসব উদ্যোগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে আশা ও রাজস্ব দুটোই এনে দিয়েছিল, যেগুলোকে তাদের দরজা বন্ধ রেখে আউটডোর ডাইনিং সেবার সুযোগ দেওয়া হয়েছি।

নগরীগুলো এখন কোভিড-পরবর্তী নতুন স্বাভাবিকতায় ফিরছে। এ অবস্থায় প্যাশিওর ক্ষেত্রে সবার জন্য প্রযোগ্য একটি মানদ- প্রয়োজন, যাতে করে আরও বেশি সংখ্যক গ্রাহক এর সেবা নিতে পাারে। সেই সঙ্গে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যবসায় নিশ্চয়তা থাকে। কারণ, তারা এখনো হারানো ব্যবসা ফিরে পাওয়ার চেষ্টার মধ্যে রয়েছে।

- Advertisement -

ভ্যানকুভারের সাবেক প্রধান পরিকল্পনাবিদ ও সিটি প্ল্যানিং পরামর্শক ব্রেন্ট টোডেরিয়ান বলেন, এটা এমন একটা বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছিল যেন উন্নত সড়ক, উন্নত নেবারহুড ও উন্নত নগরীর জন্য তেমন কিছুই নয়। এর মধ্য দিয়ে যে কতটা খারাপ করেছি সেটা সহজেই অনুমান করা যায়।

মহামারির শুরুর দিকে রেস্তোরাঁ ও বারগুলো গ্রাহকদের জন্য তাদের দরজা বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়। এর পরিবর্তে তারা টেকআউট সেবা চালু করে অথবা একেবারেই অন্ধকারে চলে যায়। সে অবস্থায় সম্প্রসারিত প্যাশিও অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য জীবনরেখা হিসেবে আবির্ভুত হয়।

আরবান স্ট্র্যাটেজির জ্যেষ্ঠ সহযোগী জেমস ডিপাওলো বলেন, মহামারি ছিল কিছুটা জোরপূর্বক পাইলট কর্মসূচি। নগরীগুলো সে সময় পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাওয়াতে উদ্ভাবনীমূলক উপায় খুঁজছিল এবং সময়ের চেয়ে অনেক আগে তারা সেবাটি চালু করেছিল।

তিন বছর পর নতুন স্ব্ভাাবিকতার দিকে যাত্রাটাকে সব জায়গাতেই ভিন্নরকম দেখা যাচ্ছে। কিছু মিউনিসিপালিটি সাময়িক পরিবর্তনকে স্থায়ী রূপ দিতে যাচ্ছে। বাকিরা এ থেকে সরে আসছে।

- Advertisement -

Read More

Recent