শনিবার - মার্চ ২ - ২০২৪

কানাডাতে এক পাউন্ড ভাল আম চার পাঁচ ডলার

কানাডাতে মেক্সিকো জ্যামাইকাডোমেনিকান রিপাবলিক ও কলোম্বিয়া থেকে যেসব আম আসে সেগুলির ভ্যারাইটি বাংলাদেশের ধারে কাছেও না অথচ দাম বেশি

বাংলাদেশের আমের স্বাদ ও জাতের বৈচিত্র্যে পৃথিবীর যে কোন দেশের চাইতে অনেক সুস্বাদু। কানাডাতে মেক্সিকো, জ্যামাইকা,ডোমেনিকান রিপাবলিক ও কলোম্বিয়া থেকে যেসব আম আসে সেগুলির ভ্যারাইটি বাংলাদেশের ধারে কাছেও না অথচ দাম বেশি। এবার বাংলাদেশে গিয়ে প্রচুর আম খেয়েছি, শরীরে সুগার বেশি তবুও খেয়েছি। কারন গত ১৩ বছর ধরে আমি বাংলাদেশের আমের স্বাদ বঞ্চিত ছিলাম।

গত দশ বছরে কলম জাত আমের চাষে বাংলাদেশের জনগণের মধ্যে একটি নিরব বিপ্লব ঘটে গেছে। এ বছরে আমের বাম্পার ফলন এইসব কর্মকাণ্ডের ফল। আগে দাদায় গাছ লাগাতেন আর নাতিপুতি আম খেতো, এখন আমি একটি কলমের চারা লাগিয়ে চার পাঁচ বছরের ভেতরেই সে গাছের আম খেতে পারি।

- Advertisement -

শুধুমাত্র আম নয় কলমজাত লিচু , লটকন, কমলা লেবু, জাম ও কাঠাল চাষেও মানুষ এগিয়ে গেছে। কালীগন্জে জঙ্গলের ভেতরেও লিচুর চাষ করে এক বিঘা জমি থেকে চার পাঁচ লক্ষ টাকার আয় এখন অতি সাধারণ ঘটনা। তবে উৎপাদিত আমের দাম নেই। এক কেজি আম পঞ্চাশ থেকে একশত টাকা মাত্র।

অথচ সুষ্ঠু প্রক্রিয়াজাত করনের সুবিধা থাকলে বিদেশে আম রপ্তানির একটা প্রচণ্ড সম্ভবনা আছে। কানাডাতে এক পাউন্ড ভাল আম চার পাঁচ ডলার অর্থাত ১২ ডলার প্রতি কেজি। ছয়টি আমের দাম বাংলাদেশের নয়শত টাকার কম নয়। সম্প্রতি বিমানের টরন্টো ফ্লাইট চালু হয়েছে। ইচ্ছা করলে সরকার আম রপ্তানির মাধ্যমে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারে। আর আমরাও দেশি আমের স্বাদ নিতে পারি।

আশাকরি সরকার আমার প্রস্তাবটি বিবেচনা করতে পারেন।

- Advertisement -

Read More

Recent