শুক্রবার - জুন ২১ - ২০২৪

ষাটোর্ধ্বদের জন্য প্রথম আরএসভি ভ্যাকসিন অনুমোদন

ভাইরাসটি সাধারণ হয়ে পড়ায় জ্যেষ্ঠ নাগরিকদের আরএসভি ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য চিকিৎসকরা আহ্বান জানিয়ে আসছেন আরএসভি ভাইরাসে আক্রান্ত হলে বয়স্ক লোকদের গুরুতর অসুস্থ্য হওয়ার ও হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি

৬০ বছর ও তার বেশি বয়সীদের জন্য আরএসভি ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রথম ভ্যাকসিন অনুমোদন করেছে হেলথ কানাডা। কিন্তু এই হেমন্তে রেসপিরেটরি ভাইরাস মৌসুমে এর ব্যবহজার সীমিত থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ভাইরাসটি সাধারণ হয়ে পড়ায় জ্যেষ্ঠ নাগরিকদের আরএসভি ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য চিকিৎসকরা আহ্বান জানিয়ে আসছেন। আরএসভি ভাইরাসে আক্রান্ত হলে বয়স্ক লোকদের গুরুতর অসুস্থ্য হওয়ার ও হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি।
কানাডায় আরএসভি মৌসুম শুরু হয় সাধারণত হেমন্তের শেষ দিকে এবং বসন্ত পর্যন্ত এটি থাকে।

- Advertisement -

ভ্যাকসিনটির প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান জিএসকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, দৈবচয়নভিত্তিতে পরিচালিত ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে আরেক্সভি নামের ভ্যাকসিনটির আরএসভির কারণে সৃষ্ট শ^াসতন্ত্রের সংক্রমণ প্রতিরোধে ৮২ শতাংশ কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে। আগে থেকেই স্বাস্থ্য সমস্যা থাকা বয়স্কদের অসুস্থ্যতা প্রতিরোধে এটির কার্যকারিতা প্রমাণিত হয়েছে ৯৪ শতাংশ।

মাউন্ট সিনাই ও টরন্টোর ইউনিভার্সিটি হেলথ নেটওয়ার্ক হসপিটালসের জেরিয়াট্রিকসের পরিচালক ডা. সমীর সিনহা ভ্যাকসিনটির অনুমোদনকে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বয়স্কদের ক্ষেত্রে আরএসভির যে ঝুঁকি তা সবসময়ই অবমূল্যায়ন করা হয়েছে।

আমরা যখন আরএসভির কথা বলি তখন এক বছরের কম বয়সী শিশুদের ক্ষেত্রে এটা কতটা ক্ষতিকর কেবল সেটাই বলে থাকি। কিন্তু আপনি যদি সব উপাত্তের দিকে তাকান তাহলে দেখবেন বয়স্কদের মধ্যে আরএসভির সংক্রমে মৃত্যুর হার এক বছরের কম বয়সী শিশুদের ছয়গুন। বয়স্করা আরএসভির ঝুঁকিতে বেশি থাকার কারণ সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়া। এ ছাড়া অন্যান্য স্বাস্থ্যগত সমস্যাও তাদের মধ্যে বেশি। এর মধ্যে রয়েছে ফুসফুস ও হৃদপিন্ডের নানা রোগ, ভাইরাসটির সংক্রমণে যার পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে থাকে।

- Advertisement -

Read More

Recent