শুক্রবার - জুন ২১ - ২০২৪

কানাডায় থাকতে চান হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থি কর্মী অ্যাগনিস চাউ

স্থায়ীভাবে কানাডায় বসবাসের সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছেন হংকংয়ের প্রখ্যাত গণতন্ত্রপন্থী কর্মী অ্যাগনিস চাউ

স্থায়ীভাবে কানাডায় বসবাসের সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছেন হংকংয়ের প্রখ্যাত গণতন্ত্রপন্থী কর্মী অ্যাগনিস চাউ। জামিনে মুক্ত হওয়ার পর আদালতে হাজির না হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এই ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া এক পোস্টে অ্যাগনিস চাউ বলেছেন, টরন্টোতে থেকে যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন তিনি। এখানকার একটি বিশ^বিদ্যালয়ে গত তিন মাস ধরে তিনি পড়াশোনা করছেন এবং নিজ শহরে আরও ফিরতে নাও পারেন।

- Advertisement -

অননুমোদিত বিক্ষোভ আয়োজনের অভিযোগে বেশ কয়েক মাস কারাগারে কাটান তিনি। পরে জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত অপরাধে জামিন পান তিনি। ইনস্টাগ্রামের পোস্টে চাউ বলেন, কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করতে এ মাসের তার হংকংয়ে যাওয়ার কথা ছিল। তিনি ফিরতি টিকিট কিনেছেন।

তবে কয়েক বছর ধরে যে মানসিক ট্রমার মধ্য দিয়ে তাকে যেতে হয়েছে তা থেকে সেরে উঠতে সম্প্রতি তিনি কানাডায় থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সরকারবিরোধী বিক্ষোভে ভূমিকার কারণে গ্রেপ্তার হয়ে ২০২১ সালের জুনে তিনি জামিনে মুক্তি পেলেও আবারও গ্রেপ্তার হওয়ার ভয় তাকে তাড়া করে ফিরছে।

হংকং পুলিশ বাহিনী এক লিখিত বিবৃতিতে জানিয়েছে, জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত অপরাধে জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর এক নারী হাজিরা না দেওয়াটা খুবই দায়ত্বজ্ঞানহীন কাজ। আরও দেরি হয়ে যাওয়ার আগেই ওই নারীকে দ্রুত ফিরে আসার আহ্বান জানাচ্ছে পুলিশ। না ফেরার সিদ্ধান্ত থেকে তাকে সরে আসার আহ্বান জানাচ্ছে। তা না হলে তাকে সারাজীবন পলাতকের তকমা বয়ে বেড়াতে হবে।

চাউ বলেন, প্রতি তিন মাস অন্তর তাকে হংকং পুলিশের সামনে হাজির হতে হয়। এ বছরের গোড়ার দিকে কানাডায় আসার আগের দিন পর্যন্ত পুলিশ তার পাসপোর্ট আটকে রেখেছিল।

হংকংয়ের সঙ্গে কানাডার বন্দি প্রত্যর্পণ চুক্তি ২০২০ সালের জুলাইয়ের পর থেকে স্থগিত আছে। সরকারবিরোধী বিক্ষোভ দমনে পুলিশকে অধিক ক্ষমতা দিয়ে চীন জাতীয় নিরাপত্তা আইন বলবৎ করার পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কানাডা।

২০১৯ সালে হংকংয়ে সরকারবিরোধী ব্যাপক বিক্ষোভের পর ভিন্ন মতাবলম্বীদের ওপর দমন-পীড়ন চালানো হয়। বিক্ষোভের বেশ কয়েকজন নেতা বর্তমানে কানাডায় বসবাস করছেন।

চাউ তার ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লিখেছেন, নিঃশঙ্ক স্বাধীনতা কতটা মূল্যবান গত কয়েক বছরে আমি সেটো উপলব্ধি করতে পেরেছি। ভবিষ্যতে কী হবে তার অনেক কিছুই এখনো অজানা। তবে আমি জানি, গ্রেপ্তার হই বা না হই শেষ পর্যন্ত আমার উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। আমি যা বলতে চাই তা আমি বলতে পারি। আমি যা করতে চাই তা আমি করতে পারি।

- Advertisement -

Read More

Recent