শুক্রবার - মে ২৪ - ২০২৪

রাজকুমার

রাজকুমার

ধারা : ফ্যামিলি, ড্রামা, কমেডি

অভিনয়ে : শাকিব খান, কোর্টনি কফি, তারেক আনাম খান, দিলারা জামান, সাদ্দাম মাল, আহমেদ শরীফ, ডিজে সোহেল সহ আরো প্রমুখ।

- Advertisement -

পরিচালনায় : হিমেল আশরাফ

নতুনত্ব ধারণা র গল্পের সিনেমা ছিলো এটি!

সাদ্দাম মাল : এনার কমেডি অংশ দিয়ে সিনেমা শুরু হয়। কমেডি সংলাপ গুলো চমৎকার ছিলো। আমাকে হাসাতে বাধ্য করেছে। এই হাসির পিছনে অভিনেতা “সাদ্দাম মাল” কল বাহ বাহ দেওয়া উচিত।

শাকিব খান : সিনেমায় এন্টি নিয়ে কমেডি শুরু করে। সেটা এভারেজ উপভোগ করছিলাম। তারপর সিনেমার মূল কনসেপ্টে গল্প চলে যায়, সিন অনুযায়ী ভালোই অভিনয় করেছিলো। ইমোশনালে অংশ বেশ চমৎকার অভিনয় করছে। তার চরিত্র হিসাবে লুক এবং কস্টিউম মানানসই। তবে কস্টিউম পোশাক আরো বিশেষ নিখুঁত হওয়ার উচিত ছিলো।

কোর্টনি কফি : গ্লাইমার রুপে এন্টি হয়। কমেডি সংলাপ, কাজ কর্ম দেখে হাসতে হয়েছে। চরিত্র হিসাবে স্ক্রিনে তাকে কম সময় রাখা উচিত ছিলো। অভিনয় ওভারঅল ভালো।

তারেক আনাম খান : বরাবর সিনেমা র মতন এখানে তার অভিনয় পারফরম্যান্সে চমৎকার করছে। তবে তার কস্টিউম দাড়িটা চোখে কেমন ফেক ফেক ভাব দেয়।

দিলারা জামান, আহমেদ শরীফ, ডিজে সোহেল সহ আরো প্রমুখ অভিনয় কুশলরা তারা তাদের জায়গায় থেকে ভালো অভিনয় করেছে।

লোকেশান সেট চমৎকার ইন্ডাস্ট্রি হিসাবে।

সিনেমাগ্রাফি, ভিডিও কালার ফাংশন এভারেজ।

সাউণ্ড সিষ্টেমে ঠিক, কিছু অংশে অতিরিক্ত হালকা বিরক্তিকর তুলছিলো।

সিনেমা দেখার আগের মুহূর্ত পর্যন্ত “একাই রাজকুমার” গান নিয়ে ক্ষুব্ধ ছিলাম। সিনেমা র মুহূর্ত হিসাবে গানটা তো ভালো লাগছিলো। টাইটেল গান, বরবাদ গান, গানের কথা দিয়ে সিনেমা অংশ বুঝানো গুলো ওভারঅল ভালো ছিলো। সবচেয়ে ভালো গান “মা” গানটি যেটা শুনছিলাম আর মুগ্ধচোখে সিনেমা র স্ক্রিনে তাকিয়ে ছিলাম।

সিনেমার সবচেয়ে মূল আকর্ষণ ছিলো, দুই জন জনপ্রিয় মুখের সারপ্রাইজ চরিত্রে অভিনয়। তাদের স্ক্রিনে প্লে কম ছিলো, কিন্তু অতটুকু সময়ে চমৎকার অভিনয় দিয়ে মুগ্ধতায় ভাসিয়ে দিয়েছে। তাদের অভিনয় ক্যারিয়ারে সেরা পারফরম্যান্স দেখিয়াছেন।

হিমেল আশরাফ : এনার সিনেমার মার্কেটিং নিয়ে খুবই বিরক্তিকর বোধ করছিলাম। ট্রেলার ভিডিও ড্রপ ছাড়া সরাসরি সিনেমা হলে সিনেমা রিলিজ দিয়েছিলো তাই। সিনেমা র ওভারঅল ভালো মেকিং জন্য রাগ কমে গেছে। তাকে বাহ বাহ দিতে হচ্ছে 👏এনার সবচেয়ে ভালো সিনেমা এটি। এটা বলতে বাধ্য করেছে। এমন নতুনত্ব গল্পের সিনেমা উপহার দিবে আশা রাখি। পরবর্তী সিনেমা র জন্য শুভ কামনা।

ফ্যামিলি, ড্রামা ধাঁচের হিসাবে সাধারণ সিনেমা।

ক্লাইম্যাক্স এসে নতুনত্ব গল্প ঢেলে দিয়েছে। এটার জন্য দর্শক হয়তো বাহ বাহ দিয়ে যাবে।

ভালো খারাপ আয়োজন মিলিয়ে একটি সিনেমা হয়। এই সিনেমাটি ভালোই উপভোগ্য সিনেমা ছিলো।

– ব্যক্তিগত রেটিং : ৩.৮/৫

- Advertisement -

Read More

Recent