শুক্রবার - জুন ২১ - ২০২৪

নিউইয়র্ক বইমেলায় দেখা হবে বন্ধু?

লুৎফর রহমান রিটন

দেখতে দেখতে দরোজায় কড়া নাড়তে শুরু করেছে মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলা ২০২৪। আগামী ২৪-২৫-২৬ এবং ২৭ মে চারদিনব্যাপি জ্যামাইকা পারফর্মিং আর্টস সেন্টারে অনুষ্ঠিতব্য বইমেলায় অংশ নিতে নিউইয়র্কে আসছেন এমন অনেক প্রিয় মানুষ যাদের সঙ্গ এবং সান্নিধ্য আমাকে আনন্দিত করে। এই যেমন ফরিদুর রেজা সাগর, রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, আফজাল হোসেন, লিলি ইসলাম, মুহম্মদ নূরুল হুদা, সৈয়দ আল ফারুক, মোহাম্মদ শাকেরউল্লাহ, সেজান মাহমুদ, বিরূপাক্ষ পাল, মোহাম্মদ নাকিবউদ্দিন এবং আরো অনেকে। আসছেন বাংলাদেশের বিখ্যাত প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের বিখ্যাত প্রকাশকরাও।

নিউইয়র্কে মুক্তধারা নামের বাংলা বইয়ের একটা প্রতিষ্ঠান এবং একটা বইমেলার স্বপ্নদ্রষ্টা বিশ্বজিৎ সাহা। এবারের বইমেলাটি মুক্তধারার ৩৩ তম আয়োজন। ভাবা যায়! নিউইয়র্কের মতো অতিব্যস্ত একটা শহরে অনেক ঘাম ঝরিয়ে তিলে তিলে গড়ে তুলেছেন তিনি তাঁর স্বপ্নের প্রতিষ্ঠানটি। বহু প্রতিকুলতাকে অতিক্রম করতে করতে, বহু বাঁধার প্রাচীরকে ভাঙতে ভাঙতে, কতিপয় স্বপ্নবান সহযোদ্ধার সমর্থনকে শক্তিতে রূপান্তরিত করে মুক্তধারাকে তিনি নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। বিশ্বজিতের একার স্বপ্নটি এখন সম্মিলিতের স্বপ্ন। বিশ্বজিতের একার প্রতিষ্ঠানটি এখন সকলের।

- Advertisement -

সবাইকে মঞ্চে তুলে দিয়ে দর্শকসারিতে দাঁড়িয়ে কিংবা বসে থাকার বিরল যোগ্যতাসম্পন্ন মানুষ এই বিশ্বজিৎ সাহা।

বিশ্বজিৎ সাহার কাছেই জেনেছি–এ বছর নিউইয়র্ক বইমেলায় সবচে বেশি সংখ্যক গুরুত্বপূর্ণ মানুষ এসে জড়ো হচ্ছেন। তালিকায় আমেরিকায় বসবাসকারী বাঙালি লেখক-কবি-শিল্পীরা তো আছেনই, তাঁদের সঙ্গে থাকবেন বাংলাদেশ-ভারত-ইংল্যান্ড এবং কানাডায় বসবাসরত লেখক-কবি-শিল্পীরাও। সব মিলিয়ে জমজমাট একটা পরিস্থিতি।

বাংলা বইকে কেন্দ্র করে আয়োজিত বাঙালির এই মিলন মেলার চারটি দিবস এবং চারটি রজনী নিউইয়র্ক মেতে থাকবে বিপুল উচ্ছ্বাসের বিপুল সৌন্দর্যের বিপুল কলরোলে।

আশা করছি আমিও উপস্থিত থাকবো নিউইয়র্কের এই আনন্দযজ্ঞে।

প্রিয় বন্ধু, আপনি আসছেন তো?

আসুন বন্ধু, আপনার দ্যুতিময় উপস্থিতি প্রাণবন্ত করে তুলবে বইমেলার প্রতিটি প্রহর প্রতিটি মুহূর্তকে।

জয় হোক বাংলা বইয়ের।

জয় হোক বাংলার।

অটোয়া ১৬ মে ২০২৪

- Advertisement -

Read More

Recent