বৃহস্পতিবার - এপ্রিল ১৮ - ২০২৪

নিজের জীবনের সব থেকে বড় ‘যুদ্ধ’ কী, জানালেন জাহ্নবী

অল্প সময়ের মধ্যেই ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের অভিনয়ের ছাপ রাখতে সক্ষম হয়েছেন বলিউডের অভিনেত্রী জাহ্নবী কাপুর। কিন্তু দুঃখের বিষয় হিন্দি সিনেমাতে মেয়ের অভিষেক দেখে যেতে পারেননি অভিনেত্রীর মা শ্রীদেবী।

- Advertisement -

২০১৮ সালে জুমাই মাসে ‘ধড়ক’ সিনেমার মাধ্যমে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন জাহ্নবী। কিন্তু তার আগেই মারা যান শ্রীদেবী। ওই বছরেই ফেব্রুয়ারি মাসে পারিবারিক একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে দুবাই গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই মৃত্যু হয় জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা যায়, এই মুহূর্তে ‘বাওয়াল’ সিনেমার প্রচারে ব্যস্ত রয়েছেন জাহ্নবী কাপুর। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে এই সিনেমার গল্প সাজিয়েছেন পরিচালক নীতেশ তিওয়ারি।

সিনেমা প্রচারের জন্য একটি সাক্ষাৎকারে মাকে স্মরণ করেছেন জাহ্নবী। তার মতে, মাকে হারানো তার জীবনের সব থেকে বড় যুদ্ধ হারার সমান।

অভিনেত্রী বলেন, আমার জীবনের সব থেকে বড় যুদ্ধ ছিল মা। ‘ধড়ক’ এর শুটিং এবং মায়ের চলে যাওয়ার সঙ্গে লড়াই করা সহজ ছিল না। এই সময়কেই তার জীবনের সব থেকে কঠিন সময় হিসেবে উল্লেখ করেন জাহ্নবী কাপুর।

তিনি বলেন, ব্যক্তিগত জীবনের ওই পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে কাজ করার মনোবল তৈরি করাটাই সব থেকে কঠিন ছিল। সমাধান খুঁজে বের করাটাই আমার জীবনের সব থেকে বড় যুদ্ধ ছিল।

চলতি বছরে শ্রীদেবীর পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকীতে সামাজিক মাধ্যমে মায়ের সঙ্গে নিজের শৈশবে তোলা একটি ছবি পোস্ট করেন অভিনেত্রী। সঙ্গে লিখেছিলেন, এখনও তোমাকে খুঁজে বেড়াই মা। এখনও সেটাই করি যা তোমাকে গর্বিত করবে। যেখানেই যাই, যা করি সবকিছুই তোমাকে দিয়ে শুরু এবং শেষ হয়।

- Advertisement -

Read More

Recent